kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ৩ ডিসেম্বর ২০২০। ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২

ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কর্মকর্তা বিগান

► আজ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক
► সাক্ষাৎ করতে পারেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ  কর্মকর্তা বিগান

তিন দিনের সফরে ঢাকায় পৌঁছেছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের ডেপুটি সেক্রেটারি স্টিফেন এডওয়ার্ড বিগান। ভারত সফর শেষে গতকাল বুধবার বিকেল ৫টার দিকে তিনি ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছেন বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

সফরের শুরুতে গত রাতেই রাজধানীর একটি হোটেলে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহিরয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠক করেন বিগান। আজ বৃহস্পতিবার সকালে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে তাঁর বৈঠক হবে। পরে দুপুর ১২টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গণভবনে সাক্ষাৎ করার কথা রয়েছে তাঁর।

এই সফরে বিগান সবার সমৃদ্ধির জন্য একটি স্বাধীন, অবাধ, অন্তর্ভুক্তিমূলক, শান্তিপূর্ণ ও নিরাপদ ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল গড়ে তোলার ওপর জোর দেবেন বলে গত শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছিল।

এ বিষয়ে সোমবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যাটেজি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বেশি আগ্রহ থাকলেও বাংলাদেশ চায় অর্থনীতি, বিনিয়োগসহ অন্যান্য খাতের ওপর জোর দিতে। তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নে বলেন, ‘তারা ইন্দো-প্যাসিফিক ইস্যু তুলবে। আমাদের কোনো আপত্তি নেই। তবে আমরা চাই এর কার্যকারিতা বাড়ানোর জন্য তাদের কিছু অবকাঠামো উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। তাদের টাকা খরচ করতে হবে, শুধু মুখে বললেই হবে না। তাদের বিনিয়োগ করতে হবে। আমাদের অবকাঠামোতে তাদের কোনো অবদান নেই, কিন্তু তারা চাইলেই করতে পারে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘করোনাভাইরাস মহামারির কারণে তৈরি পোশাক শিল্পের ক্ষতি পোষাতে সাহায্য চাইবে বাংলাদেশ। তোমরা চাচ্ছ আমাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব বৃদ্ধি করতে এবং তোমরা এখানে  আমাদের কেন সাহায্য করছ না? দুই বা তিন বছরের জন্য বাংলাদেশের পণ্যের ওপর শুল্ক স্থগিতের ঘোষণা দিতে পারে যুক্তরাষ্ট্র।’

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং আলোচনার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্র-বাংলাদেশের অংশীদারির বিষয়টি ফের নিশ্চিত করবেন স্টিফেন বিগান। একই সঙ্গে কভিড-১৯ মোকাবেলা ও অর্থনীতি পুনরুদ্ধার এবং টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন প্রচেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের অংশীদারি ও যৌথ সহযোগিতা নিয়ে সফরে আলোচনা হবে।

গত ১২ অক্টোবর নয়াদিল্লি থেকে সফরের মধ্য দিয়ে দক্ষিণ এশিয়া সফর শুরু করেছেন বিগান।

মন্তব্য