kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ১ ডিসেম্বর ২০২০। ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

আরো ৩০ মৃত্যু, শনাক্ত ১,৪৯৯

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৭ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আরো ৩০ মৃত্যু, শনাক্ত ১,৪৯৯

নভেল করোনাভাইরাসে (কভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে আরো ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল পাঁচ হাজার ৪০৫ জনে। এ ছাড়া নতুন করে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরো এক হাজার ৪৯৯ জনের দেহে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে মোট শনাক্ত হলো তিন লাখ ৭১ হাজার ৬৩১ জন করোনা রোগী। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কভিড-১৯ সংক্রান্ত পরিস্থিতির স্বাস্থ্য সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে এক হাজার ৬৫১ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলো দুই লাখ ৮৪ হাজার ৮৩৩ জন।

এর আগে গত সোমবার দেশে আরো এক হাজার ৪৪২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এ ছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যায় আরো ২৭ জন। দেশে কভিড-১৯ সংক্রমিত প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ, প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গতকাল যে ৩০ জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছে তাদের সবার মৃত্যু হয়েছে হাসপাতালে। বয়সভিত্তিক হিসাবে তাদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ১৭ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে সাতজন,  ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে দুজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন এবং ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছিল একজন। বিভাগওয়ারি মৃত্যু বিশ্লেষণে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগে ১৯, চট্টগ্রাম বিভাগে চার, খুলনা বিভাগে দুই, বরিশাল বিভাগে দুই, সিলেটে এক এবং রংপুরে দুজন রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আরো জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ২০৯ জনকে। এ নিয়ে বর্তমানে আইসোলেশনে আছে ১৪ হাজার ১৩৪ জন। আইসোলেশন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৬৪ জন এবং এখন পর্যন্ত ৬৮ হাজার ২৬৫ জন ছাড়া পেয়েছে। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৮২ হাজার ৩৯৯ জনকে। প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিন মিলিয়ে ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ৭৬২ জনকে। কোয়ারেন্টিন থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৫২ জন এবং এখন পর্যন্ত চার লাখ ৯৬ হাজার ১৭৭ জন ছাড়া পেয়েছে। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে পাঁচ লাখ ৩৭ হাজার ৮৪৪ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছে ৪১ হাজার ৬৬৭ জন।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা