kalerkantho

শুক্রবার । ৭ কার্তিক ১৪২৭। ২৩ অক্টোবর ২০২০। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পথে সুগা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পথে সুগা

শিনজো আবের উত্তরসূরি বেছে নিল জাপানের ক্ষমতাসীন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি। গতকাল সোমবার আবে প্রশাসনের মন্ত্রিপরিষদের মুখ্য সচিব ইয়োশিহিদে সুগাকে (৭১) নতুন নেতা নির্বাচন করা হয়েছে। সুগার বিদায়ি প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের স্থলাভিষিক্ত হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা।

স্বাস্থ্যগত কারণে আবে গত মাসে পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

নিয়ম অনুযায়ী ক্ষমতাসীন দলের নির্বাচিত সভাপতিই প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন। আগামীকাল বুধবার পার্লামেন্টে ভোটাভুটির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বেছে নেওয়া হবে। পার্লামেন্টে এলডিপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় দলটির নতুন নেতা সুগার প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিশ্চিত। প্রধানমন্ত্রিত্বের পাশাপাশি সুগা এলডিপির নেতৃত্বও দেবেন।

লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির আইন প্রণেতা ও আঞ্চলিক প্রতিনিধিদের মোট ৫৩৪ ভোটের মধ্যে ৩৭৭ ভোটে জয়ী হয়েছেন সুগা। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী সিগেরু ইশিবা এবং সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও দলের অন্যতম নীতিনির্ধারক ফুমিও কিশিদা অনেক ব্যবধানে পরাজিত হয়েছেন। ইশিবা মাত্র ৬৮ ভোট পান আর কিশিদা পেয়েছেন ৮৯ ভোট।

অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে গত ২৮ আগস্ট জাপানের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন আবে। জাপানের সবচেয়ে দীর্ঘ মেয়াদে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা আবে কয়েক বছর ধরে আলসারেটিভ কোলাইটিস রোগে ভুগছেন।

আবের পদত্যাগের ঘোষণার পর তাঁর দল থেকে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে নামেন সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইশিবা, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিশিদা এবং আবের আশীর্বাদপুষ্ট ও দীর্ঘদিনের মন্ত্রিপরিষদসচিব সুগা।

১৯৭৩ সালে টোকিও হোসেই নৈশ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনে স্নাতক করা সুগার জন্ম কৃষক পরিবারে। নিজের উপার্জিত অর্থে পড়াশোনা করা সুগা ১৯৮৬ সালে এলডিপিতে যোগ দেন। পরে ১৯৯৬ সালে কানাজাওয়া প্রদেশ থেকে আইন প্রণেতা নির্বাচিত হন।

আবের নেতৃত্বাধীন সরকারের পুরো সময় মন্ত্রিপরিষদের সচিবের দায়িত্বে থাকা সুগা সরকারের নীতিনির্ধারকের ভূমিকায়ও ছিলেন। নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সুগা ২০২১ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন।

টোকিওর সোফিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক ও ডিন কোইচি নাকানো বলেন, আবেকে ছাড়াই তাঁর প্রশাসন পরিচালনা করতে পারবেন বলেই সুগাকে উত্তরসূরি নির্বাচন করা হয়েছে। কর্মঠ ও বাস্তববাদী নেতা হিসেবে সুগার উজ্জ্বল ভাবমূর্তি রয়েছে। এলডিপির মধ্যেও সুগা যথেষ্ট জনপ্রিয়।

সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা