kalerkantho

মঙ্গলবার । ৭ আশ্বিন ১৪২৭ । ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৪ সফর ১৪৪২

২ লাখ ৬০ হাজার ছাড়াল শনাক্ত, সুস্থ প্রায় ৫৮ শতাংশ

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু আরো ৩৯ জনের মোট মৃত্যু ৩৪৩৮

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১১ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



২ লাখ ৬০ হাজার ছাড়াল শনাক্ত, সুস্থ প্রায় ৫৮ শতাংশ

সরকারি হিসাবে গতকাল সোমবার পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে দুই লাখ ৬০ হাজার ৫০৭। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে দুই হাজার ৯০৭ জন। একই সময়ে মারা গেছে ৩৯ জন। এ নিয়ে মোট তিন হাজার ৪৩৮ জন মারা গেছে। এখন পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর মধ্যে প্রায় ৫৮ শতাংশ সুস্থ হয়েছে।

নিয়মিত বুলেটিনে গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এ তথ্য জানান।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম রোগী পাওয়ার তথ্য জানানো হয় গত ৮ মার্চ। আর প্রথম মৃত্যুর ঘটনা জানানো হয় ১৮ মার্চ। এ হিসাবে দেশে করোনা সংক্রমণের পাঁচ মাস পার হয়েছে।

বুলেটিনে জানানো হয়, এ পর্যন্ত শনাক্তকৃত রোগীর মধ্যে সুস্থ হয়েছে এক লাখ পাঁচ হাজার ৪৩৭ জন। সুস্থতার হার ৫৭.৭৫ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে দুই হাজার ৬৭ জন। আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার ১.৩২ শতাংশ। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুহার ১.৩৪ শতাংশ।

বুলেটিনের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে সাতজন, খুলনা বিভাগে ছয়জন, রাজশাহী বিভাগে আটজন, ময়মনসিংহ বিভাগে তিনজন, রংপুর বিভাগে একজন এবং বরিশাল বিভাগে দুজন। তাদের মধ্যে ৩৫ জন পুরুষ এবং চারজন নারী। ৩১ জন মারা গেছে হাসপাতালে এবং আটজন বাড়িতে।

আগের দিন অর্থাৎ রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টার তুলনায় গতকাল পরীক্ষা, শনাক্ত, মৃত্যু বেড়েছে। একইভাবে সুস্থ হওয়ার সংখ্যাও বেড়েছে। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১০ হাজার ৭৫৯টি। শনাক্ত রোগী ছিল দুই হাজার ৪৮৭ জন। মারা গেছে ৩২ জন। সুস্থ হয়েছিল এক হাজার ৭৬৬ জন।

অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, শেষ ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২ হাজার ৮৪৯টি। মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১২ লাখ ৭৩ হাজার ১৬৮টি। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২২.৬২ শতাংশ।

তথ্য অনুসারে, ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ১০ বছরের কম বয়সী শিশু রয়েছে একজন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে একজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১০ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে ছয়জন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে চারজন। এ ছাড়া দেশে এখন আইসোলেশনে আছে ১৮ হাজার ৯৮১ জন এবং কোয়ারেন্টিনে আছে ৫২ হাজার ৪৮২ জন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা