kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০। ৬ সফর ১৪৪২

দুই পাইলটসহ নিহত অন্তত ১৭

কেরালায় রানওয়ে থেকে ছিটকে বিমান দুই টুকরা

১৯১ আরোহী নিয়ে দুবাই থেকে ফিরছিল এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানটি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৮ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কেরালায় রানওয়ে থেকে ছিটকে বিমান দুই টুকরা

বিমান দুর্ঘটনা : ১৯১ জন আরোহী নিয়ে দুবাই থেকে ছেড়ে আসা এয়ার ইন্ডিয়ার একটি উড়োজাহাজ গত রাতে ভারতের কেরালায় কোঝিকোড় বিমানবন্দরে নামার সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। ছবি : সংগৃহীত

ভারতের কেরালা রাজ্যের কোঝিকোড় বিমানবন্দরে অবতরণের সময় এয়ার ইন্ডিয়ার একটি বিমান রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে দুই টুকরা হয়ে গেছে। এতে দুই পাইলটসহ অন্তত ১৭ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১২৩ জন।

বিমানটিতে যাত্রী ও ক্রু মিলে ১৯১ জন আরোহী ছিলেন। তাঁদের মধ্যে ১০ শিশুসহ ১৭৪ যাত্রী, দুইজন পাইলট ও পাঁচজন বিমানকর্মী। ঘটনার সময় ভারি বৃষ্টি হচ্ছিল। করোনা পরিস্থিতিতে বিদেশে আটকা পড়া ভারতীয়দের নিয়ে আইএক্স-১৩৪৪ বিমানটি দুবাই থেকে ফিরছিল।

বিমানটি দুই টুকরা হলেও তাতে আগুন ধরেনি। সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন, এ কারণে অনেক আরোহী বেঁচে যেতে পারে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এ ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় সব ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে। তিনি এ ব্যাপারে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারায়ি বিজয়নের সঙ্গে কথা বলেছেন। 

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের বিমান দুর্ঘটনার বিষয়টি জেনে বিপর্যস্ত। জরুরি উদ্ধারকাজ চালানোর জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেছেন, ‘বিমান দুর্ঘটনার খবর শুনে স্তম্ভিত। সব আরোহী যেন বেঁচে যান, সেই প্রার্থনা করছি। এই মুহূর্তে বিমানটির সব যাত্রী, ক্রু ও তাঁদের প্রিয়জনদের পাশে আছি।’

কোঝিকোড় বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অবতরণের সময় স্থানীয় সময় রাত সোয়া ৮টার দিকে বিমানটি রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, ফ্লাইটটির ক্যাপ্টেন ও কয়েকজন যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। তবে এর সত্যতা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সংবাদমাধ্যমগুলো সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলোর বরাতে জানায়, ভেঙে দুই টুকরা হলেও বিমানটিতে আগুন ধরেনি। এ ঘটনার পর বিমানবন্দরটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

১৯৯৮ সালের পর কেরালার এই বিমানবন্দরে এটি প্রথম বিমান দুর্ঘটনা।

জানা গেছে, শুক্রবার সারা দিনই কেরালায় ভারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। বৃষ্টিতে ভূমিধসের ঘটনাও ঘটেছে। এতে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে ২০১০ সালের মে মাসে এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের একটি বিমান ম্যাঙ্গালোর বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়েছিল। ওই ঘটনায় ১৫৮ জন নিহত হয়েছিল।

সূত্র : পিটিআই, এএফপি, টাইমস অব ইন্ডিয়া, দ্য হিন্দু, এনডিটিভি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা