kalerkantho

শনিবার । ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭। ৮ আগস্ট  ২০২০। ১৭ জিলহজ ১৪৪১

রাজশাহীতে দুই করোনা রোগীর লাশ ফেলে পালাল স্বজনরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৬ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজশাহীতে দুই করোনা রোগীর লাশ ফেলে পালাল স্বজনরা

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া দুই ব্যক্তির লাশ রেখে পালিয়েছে তাঁদের স্বজনরা। গতকাল রবিবার দাফনের জন্য মৃতদের স্বজনদের খোঁজাখুঁজি করেও পায়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরে তাদের খোঁজার জন্য পুলিশের শরণাপন্ন হয় তারা।

মৃতরা হলেন—নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার জামগ্রামের আজাদ আলী এবং রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার মোয়াজ আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন আজাদ আলী ও হাবিবুর রহমান। নমুনা পরীক্ষায় তাঁদের করোনা পজিটিভ আসে। আজাদ আলীকে হাসপাতালের আইসিইউতে এবং হাবিবুর রহমানকে ২৯ নম্বর (করোনা ওয়ার্ড) ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। গত শনিবার রাত দেড়টার দিকে আজাদ আলী এবং গতকাল ভোরে হাবিবুর রহমান মারা যান। দুজনের স্বজনরা লাশ দুটি রাজশাহীতেই দাফনের জন্য অনুরোধ করে। পরে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা রাজশাহীতে লাশ দাফনের ব্যবস্থা করে। কিন্তু প্রয়োজনীয় কাজ শেষে স্বেচ্ছাসেবীরা হাসপাতালে গিয়ে মৃতদের স্বজনদের খুঁজে না পেয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানায়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীর স্বজনদের ফোন করে নম্বর বন্ধ পায়।

রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হাসপাতালে দুজন রোগীর সঙ্গে স্বজনরা ছিল। দুজন মারা যাওয়ার পর থেকে তাদের নম্বর বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। ঘটনাটি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা