kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭। ১১ আগস্ট ২০২০ । ২০ জিলহজ ১৪৪১

একাধিক নতুন সিদ্ধান্ত

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের থাকতে হবে ফেসবুক পেজ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রাথমিক বিদ্যালয়ের থাকতে হবে ফেসবুক পেজ

প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফেসবুক পেজ থাকতে হবে। শিক্ষকরা পাঠদান কার্যক্রম ভিডিও করে ওই ফেসবুক পেজে আপলোড দেবেন। করোনাকালে সেখান থেকে শিক্ষার্থীরা পড়া সংগ্রহ করবে। এ ছাড়া জুম অ্যাপস ব্যবহার করে সব প্রধান শিক্ষক সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসারদের সঙ্গে ভার্চুয়াল সভা করবেন। টেলিভিশনে ‘ঘরে বসে শিখি’ কার্যক্রমে আরো বেশিসংখ্যক শিক্ষার্থী যেন যুক্ত হয় সে জন্য ফোনের মাধ্যমে অভিভাবকদের সঙ্গে শিক্ষকরা যোগাযোগ করবেন। সম্ভব হলে পাঠ প্রচারের সময়সূচি স্থানীয় মসজিদের মাইকের মাধ্যমে অভিভাবক ও ছাত্রছাত্রীদের জানিয়ে দিতে হবে।

সম্প্রতি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম আল হোসেন ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিপ্তরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ প্রাথমিক শিক্ষার মাঠ পর্যায়ের বিভাগীয় উপপরিচালক, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ডিপিইও), পিটিআই সুপারসহ অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে নতুন এসব সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এ ছাড়া এখন থেকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনে ‘বাস্তবায়নে এলজিইডি’ না লিখে এর জায়গায় ‘বাস্তবায়নে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর’ লিখতে হবে। একেক স্থানে একেক রকমভাবে বিদ্যালয়ের নাম লেখায় তা দৃষ্টিকটু এবং শিশুদের জন্য তা বোঝাও কঠিন। এ জন্য প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে সাইনবোর্ডে বাংলায় বিদ্যালয়ের নাম লিখতে হবে। বিদ্যালয়ের নামের আগে ‘......নং’ কথাটি ব্যবহার করা যাবে না।

করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করার জন্য শিক্ষকরা বিদ্যালয়ভিত্তিক প্রশ্নপত্র তৈরি করবেন। স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে অথবা নিজেরা শিক্ষার্থীদের বাড়ি পৌঁছে দেবেন এবং তা মূল্যায়নের ব্যবস্থা করবেন। তবে যেসব স্কুলের পক্ষে এই কাজ করা সম্ভব তাদেরই তা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

এ ছাড়া প্রতিটি পিটিআইয়ের জন্য আরো একজন করে সহকারী সুপার পদ সৃষ্টির প্রস্তাব গতকাল বৃহস্পতিবার সচিব কমিটিতে অনুমোদন পেয়েছে বলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। পিটিআইগুলোয় একজন করে সহকারী সুপারের পদ আগে থেকেই ছিল। প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য আরো একজন সহকারী সুপারের পদ সৃষ্টি হলো। পিটিই ইনস্ট্রাক্টরদের মধ্য থেকে এই পদে পদোন্নতি দেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা