kalerkantho

রবিবার । ২২ চৈত্র ১৪২৬। ৫ এপ্রিল ২০২০। ১০ শাবান ১৪৪১

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বিদেশ ভ্রমণ নয়

চীন ভ্রমণ ছাড়াও আক্রান্ত অনেক দেশে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বিদেশ ভ্রমণ নয়

চীনের বাইরে কয়েকটি দেশে করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) আক্রান্ত রোগীদের রোগতাত্ত্বিক তথ্য পরীক্ষা করে দেখা গেছে, তাদের আক্রান্ত হওয়ার সঙ্গে চীন ভ্রমণ কিংবা আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শের ইতিহাস নেই। অজানা উৎস থেকে কভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা এবং ইনফ্লুয়েঞ্জার মতো দ্রুত বিস্তারকে জটিল পরিস্থিতি বলে আখ্যায়িত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লিউএইচও)। এ অবস্থায় জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বিদেশ ভ্রমণ না করার পরামর্শ দিয়েছে সরকার।

গতকাল রবিবার নিয়মিত অবহিতকরণ অনুষ্ঠানে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ড. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, ‘এখন আর কেবল চীনফেরত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকলেই চলবে না, বরং যেকোনো দেশ থেকে আসা যাত্রীদের ব্যাপারেই অধিকতর সতর্ক অবস্থানে থাকবে হবে।’

ড. ফ্লোরা বলেন, কভিড-১৯-এর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে হলে এর উৎস চিহ্নিত করে একে বিচ্ছিন্ন করতে হয়। চীনের হুবেই প্রদেশে বিশেষ করে উহান শহরকে বিচ্ছিন্ন করে তার কিছু সুফল দেখা যাচ্ছে। এখন হুবেই প্রদেশে কভিড-১৯ সংক্রমণের হার নিম্নমুখী। সিঙ্গাপুরেও এ ধরনের পদেক্ষেপের সুফল দেখা যাচ্ছে। কিন্তু চীনের বাইরে কয়েকটি দেশে কভিড-১৯-এর দ্রুত বিস্তার এবং কয়েকটি দেশে সংক্রমণের উৎস খুঁজে না পাওয়াটা কভিড-১৯ মহামারি নিয়ন্ত্রণকে জটিল করে তুলেছে।

ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘বিদেশ ভ্রমণের ক্ষেত্রে খুবই সতর্ক থাকতে হবে। অত্যাবশ্যক নয় এমন ভ্রমণ থেকে বিরত থাকতে হবে। অত্যাবশ্যকীয় ভ্রমণের ক্ষেত্রে কভিড-১৯ প্রতিরোধের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।’

বাংলাদেশ পরিস্থিতি সম্পর্কে ব্রিফিংয়ে বলা হয়, আইইডিসিআরের ভাইরোলজি ল্যাবরেটরিতে সন্দেহজনক উপসর্গ অনুসারে ৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে এ পর্যন্ত কারো নমুনায় কভিড-১৯ পাওয়া যায়নি।

এদিকে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো সর্বশেষ খবরের বরাত দিয়ে আইইডিসিআর জানায়, বাংলাদেশের মোট পাঁচজন নাগরিক কভিড-১৯ সংক্রমিত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে একজন আইসিইউয়ে অপরিবর্তিত অবস্থায় আছে। কোয়ারেন্টাইনে আছে পাঁচ বাংলাদেশি। এ ছাড়া আমিরাতে কভিড ১৯ আক্রান্ত বাংলাদেশের এক নাগরিক সে দেশের ব্যবস্থাপনায় চিকিৎসাধীন বলেও জানানো হয়েছে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা