kalerkantho

মঙ্গলবার । ৫ ফাল্গুন ১৪২৬ । ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ সড়কে পিষ্ট ১০ প্রাণ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ সড়কে পিষ্ট ১০ প্রাণ

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় গতকাল শুক্রবার যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে দুই নারী ও বাসচালকের সহকারী (হেলপার) নিহত এবং ৩০ জন আহত হয়েছে। একই জেলার নবীগঞ্জ, রাজশাহীর গোদাগাড়ী, লালমনিরহাটের পাটগ্রাম, বাগেরহাটের রামপাল, চুয়াডাঙ্গা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল ও ঢাকার সাভারে কলেজশিক্ষক, এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ সাত ব্যক্তির প্রাণ গেছে সড়ক দুর্ঘটনায়। গত বৃহস্পতিবার রাতে ও গতকাল এসব দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন, থানা পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

হবিগঞ্জ ও নবীগঞ্জ : বাহুবলের কামাইছড়া এলাকায় ঢাকা-সিলেট পুরনো মহাসড়কে নিহতরা হলেন উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের ইসলাম উদ্দিনের মেয়ে কমলা বেগম (৩৫) ও মড়ুরা গ্রামের আবু সাঈদ (৩০)। নিহত অন্য নারীর পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় আহতদের হাসপাতালে পাঠিয়েছে স্থানীয় লোকজন।

সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শ্রীমঙ্গল থেকে হবিগঞ্জগামী যাত্রীবাহী বাসটি (হবিগঞ্জ ব ০৫-০০৩১) কামাইছড়া পাহাড়ি এলাকার টার্নিং পয়েন্টে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাহাড়ের নিচে খাদে পড়ে যায়। তাত্ক্ষণিক রশিদপুর গ্যাস ফিল্ডের যন্ত্র দিয়ে বাসটির নিচ থেকে তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করেন। দুর্ঘটনায় মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ দেড় ঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক করে।

এদিকে আত্মীয়বাড়ি থেকে বাড়ি ফেরার পথে নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের মিনাজপুর গ্রামের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে বৃহস্পতিবার রাতে একটি গাড়ি এক বৃদ্ধের ওপর দিয়ে চলে গেলে তাঁর মৃত্যু হয়। নিহত নানু মিয়া (৭০) মিনাজপুরের বাসিন্দা। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন মহাসড়কে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেয়। এক ঘণ্টা পর পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত ও গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক করে।

রাজশাহী : গোদাগাড়ীর রাজাবাড়ী ছয়ঘাটি এলাকায় রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়কে গতকাল সকালে মোটরসাইকেল, মিনি ট্রাক ও ট্রলির ত্রিমুখী সংঘর্ষে মোটরসাইকেল আরোহী সালাম উদ্দীন (৫০) নিহত হন। তিনি উপজেলার ছয়ঘাটি নাজিরপুর গ্রামের মৃত মহিউদ্দীন সরকারের ছেলে ও কাঁকনহাট মহাবিদ্যালয়ের শরীরচর্চা বিভাগের শিক্ষক। বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে রাজশাহী নগরের দিকে যাওয়ার সময় তিনি দুর্ঘটনায় পড়েন। স্থানীয়রা তাঁকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে সেখানে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রেমতলী পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ আব্দুল বারী জানান, নিহতের পরিবার থেকে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পাটগ্রাম (লালমনিরহাট) : বৃহস্পতিবার রাতে পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের ঘুণ্টিঘর এলাকায় লালমনিরহাট-বুড়িমারী স্থলবন্দর মহাসড়কে ট্রাকের ধাক্কায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ও দুজন আহত হয়েছেন। নিহত আব্দুর রহিম (৫০) উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের মোক্তার হোসেনের ছেলে। আহতরা হলেন বুড়িমারীর কামারেরহাট গ্রামের মোটরসাইকেলচালক আমিনুর রহমান (৪১) ও একই গ্রামের আনছার আলী (৪৬)। হতাহত তিনজন মোটরসাইকেলে করে যাওয়ার সময় পেছন থেকে মোটরসাইকেলটিকে একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। আহতদের রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। 

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মহন্ত জানান, ট্রাকটি আটক করা হয়েছে।   

রামপাল (বাগেরহাট) : গতকাল সকালে রামপাল উপজেলার কাশিপুর গ্রামের হাফিজিয়া মাদরাসার সামনে গিলাতলা-চাকশ্রী সড়কে রাস্তা পার হওয়ার সময় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় হাজেরা বেগম (৭৫) নিহত হন। তিনি গ্রামটির মৃত হানিফ মোল্যার স্ত্রী।

এ ঘটনায় আহত মোটরসাইকেলচালক বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার শনির মোড়ের বাসিন্দা নাজিম হাওলাদারকে (৩০) আটক করে স্থানীয় লোকজন।

চুয়াডাঙ্গা : সদর উপজেলার বোয়ালমারী গ্রামে গতকাল সকালে একটি আলমসাধু নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে গেলে গাড়িটির যাত্রী মারফত আলী (৬০) নিহত হন। তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলার ভাংবাড়িয়া গ্রামের মৃত রবজেল আলীর ছেলে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : সরাইলের বৈশামুড়া এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে গতকাল সকালে ট্রাকচাপায় অটোরিকশা যাত্রী এসএসসি পরীক্ষার্থী পঙ্কজ দাস নিহত হয়। সে উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের সুনীল চন্দ্র দাসের ছেলে ও শাহবাজপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র। খাঁটিহাতা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মাইনুল ইসলাম জানান, ওষুধ আনতে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে চান্দুরা যাচ্ছিল পঙ্কজ। এ সময় একটি ট্রাক পেছন থেকে অটোরিকশাকে চাপা দিলে পঙ্কজের মৃত্যু হয়।

সাভার (ঢাকা) : আশুলিয়ার আব্দুল্লাহপুর-বাইপাইল মহাসড়কের ইউনিক এলাকায় গতকাল সকালে বাসচাপায় নির্মাণ শ্রমিক উজ্জ্বল হোসেনের (৩২) মৃত্যু হয়। তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার নরেন্দ্রপুর গ্রামের বদর আলীর ছেলে এবং আশুলিয়ার কুরগাঁওয়ের মো. জামালের বাড়িতে ভাড়া থেকে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন।

নিহতের সহকর্মী রেজাউল করিম জানান, সকালে তাঁরা দুজন বাসে করে কাজের উদ্দেশ্যে বাইপাইল থেকে ইউনিক এলাকায় যাচ্ছিলেন। তাঁরা ইউনিক বাসস্ট্যান্ডে নামতেই পেছন থেকে একটি বাস উজ্জ্বলকে চাপা দেয়।

আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক রফিকুল ইসলাম বলেন, উজ্জ্বলের স্বজনরা থানায় এলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা