kalerkantho

রবিবার  । ১৫ চৈত্র ১৪২৬। ২৯ মার্চ ২০২০। ৩ শাবান ১৪৪১

ওমানের হিমাগারে পড়ে আছে তারাকান্দার প্রবাসী শ্রমিকের লাশ

ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৯ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ওমানের হিমাগারে পড়ে আছে তারাকান্দার প্রবাসী শ্রমিকের লাশ

প্রতীকী ছবি

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার কাকনী ইউনিয়নের পঙ্গুয়াই গ্রামের প্রবাসী এক শ্রমিকের লাশ ছয় দিন ধরে ওমানের একটি হাসপাতালের হিমাগারে পড়ে আছে। অর্থের অভাব ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের অসহযোগিতার কারণে বিদেশ থেকে মানিক মিয়া নামের ওই শ্রমিকের লাশ আনা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছে স্বজনরা। লাশ দেশে আনতে তাই প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চেয়েছে তারা।

মৃত মানিক মিয়া (৩৯) পঙ্গুয়াই গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, পরিবারের হাল ধরতে প্রায় চার বছর আগে শেষ সম্বল বসতভিটা বিক্রি করে স্থানীয় এক দালালের মাধ্যমে ওমানে যান মানিক মিয়া। সেখানে এক খেজুরবাগানে চাকরি করতেন তিনি। গত ১৪ জানুয়ারি ওমানে কর্মরত অবস্থায় হৃদেরাগের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মারা যান। বর্তমানে ওমানের একটি হাসপাতালে তাঁর লাশ পড়ে আছে।

গত শুক্রবার রাতে পঙ্গুয়াই গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, টিনশেডের একটি বাড়িতে বসবাস করেন মানিক মিয়ার পরিবার। তাঁর মৃত্যুতে পরিবার ও এলাকায় চলছে শোকের মাতম। স্ত্রী রহিমা খাতুন চার সন্তানকে নিয়ে স্বামীর জন্য অঝোরে কাঁদছেন। ছেলে-মেয়েদের বারবার সান্ত্বনা দিয়েও কান্না থামানো যাচ্ছে না। বৃদ্ধ বাবা আবু তাহের ও মা জাহানারা বেগম ছেলের জন্য বিলাপ করছেন। বাবা আবু তাহের বলেন, শেষবারের মতো ছেলের মুখ দেখতে চান তিনি। প্রধানমন্ত্রীই এখন তাঁদের শেষ ভরসা। ছেলের লাশ দেশে আনতে ও এলাকায় দাফন করতে তাই প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছেন তাঁরা।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা