kalerkantho

রবিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০২০। ৫ মাঘ ১৪২৬। ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

মিস ইউনিভার্সের মুকুট দ. আফ্রিকার তুনঝির মাথায়

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মিস ইউনিভার্সের মুকুট দ. আফ্রিকার তুনঝির মাথায়

গায়ের রং তাঁর কালো। চুলের স্টাইলও সমাজের আর দশজনের মতো। প্রচলিত অর্থে সুন্দর বলতে লোকে যা বোঝে তেমনটি তিনি নন। দক্ষিণ আফ্রিকার কৃষ্ণবর্ণের এই মেয়েই সারা বিশ্বের ৯০ জনেরও বেশি সুন্দরীকে হারিয়ে জিতে নিয়েছেন মিস ইউনিভার্সের খেতাব। পাল্টে দিয়েছেন সৌন্দর্যের সংজ্ঞা। তাঁর নাম ঝোঝিবিনি তুনঝি।

গত রবিবার যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টা শহরের টাইলারপেরি স্টুডিওতে এক আড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানে মিস ইউনিভার্স-২০১৯ হিসেবে ২৬ বছর বয়সী তুনঝির নাম ঘোষণা করা হয়। গত বছরের মিস ইউনিভার্স ফিলিপাইনের ক্যাটরিওনা গ্রে তাঁকে বিজয় মুকুট পরিয়ে দেন। তুনঝি তাঁর সমাপনী বক্তব্যে বলেন, ‘আমি এমন এক সমাজে বড় হয়েছি যেখানে যেসব নারীর আমার মতো গায়ের রং, চুল বা চেহারা তাদের কখনোই সুন্দরের কাতারে ফেলা হয় না।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমি মনে করি, আজ এ ধারণার অবসান ঘটল। আমি চাই, শিশুরা আমার দিকে তাকাবে এবং আমাকে দেখতে চাইবে। আমি চাই, তাদের মুখচ্ছবি মনেও প্রতিফলিত হবে।’  

ইস্টার্ন কেপ প্রদেশের সোলো শহরে ১৯৯৩ সালে জন্ম তুনঝির। লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতার বিরুদ্ধে সক্রিয় তুনঝি কেপ পেনিনসুলা ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি থেকে পাবলিক রিলেশন্সে ব্যাচেলর ডিগ্রি নিয়েছেন।

এ বছর মিস ইউনিভার্সের ৬৮তম আসর ছিল। এতে প্রথম রানার-আপ হন মিস পুয়ের্তোরিকো ম্যাডিসন অ্যান্ডারসন এবং দ্বিতীয় রানার-আপ হন মিস মেক্সিকো সোফিয়া আরাগন। মার্কিন টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব স্টিভ হার্ভের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে হৃদয়স্পর্শী বিভিন্ন বক্তব্য দেওয়া হয়। আসরের শুরু থেকেই ধারণা করা হচ্ছিল, এবার মিস থাইল্যান্ড অথবা মিস ফিলিপাইন মিস ইউনিভার্সের খেতাব জিতবেন। কিন্তু তাঁরা শেষ পর্যন্ত শেষ দশেও পৌঁছাতে পারেননি।

এ বছর প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের মেয়ে শিরিন আক্তার শিলা মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। সূত্র : এএফপি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা