kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

আরটিভি-ডাবর ভাটিকা ক্যাম্পাস স্টার

‘সিজন-২’-এ ইন্দ্রানি সেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



‘সিজন-২’-এ ইন্দ্রানি সেরা

আরটিভি-ডাবর ভাটিকা ‘ক্যাম্পাস স্টার সিজন-২’-এ চ্যাম্পিয়ন ও দুই রানার আপ। ছবি : কালের কণ্ঠ

আরটিভি-ডাবর ভাটিকা ‘ক্যাম্পাস স্টার সিজন-২’-এ চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ইন্দ্রানি দাস নিশি। প্রথম রানার-আপ হয়েছেন উম্মে হাবিবা বর্ষা এবং দ্বিতীয় রানার-আপ হয়েছেন শারমিন শায়লা বীথি। এ ছাড়া ডাবর রেড টুথপেস্ট বেস্ট স্মাইল হয়েছেন উম্মে হাবিবা বর্ষা, ডাবল গুলাবেরি বেস্ট স্ক্রিন দেবশ্রী অন্তরা রায় চৌধুরী এবং ডাবর ভাটিকা বেস্ট হেয়ার নির্বাচিত হয়েছেন অনামিকা পিউ।

গত রবিবার (১ ডিসেম্বর) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে জমকালো গ্র্যান্ড ফাইনালে বিজয়ীদের নির্বাচন করা হয় এবং পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। আর এ প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার ছিল কালের কণ্ঠ।

গ্র্যান্ড ফাইনালে বিচারক ছিলেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস, গায়ক ও সুরকার এস আই টুটুল, অভিনেতা সজল ও মডেল নাবিলা। এ ছাড়া জমকালো এই অনুষ্ঠানে অভিনয়শিল্পী, গায়কসহ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন আরটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ন কবির বাবলু, ডাবর বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ব্রজেশ কুমার ও আরটিভির প্রধান নির্বাহী সৈয়দ আশিক রহমান।

জানা যায়, গত ১ জুলাই থেকে শুরু হওয়া আরটিভি-ডাবর ভাটিকা ক্যাম্পাস স্টারের সিজন-২-তে ছয়টি বিভাগের ২৬ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯ হাজার প্রতিযোগী অংশ নেন। নানা পর্যায় শেষে তাঁদের মধ্য থেকে আটজন অংশ নেন চূড়ান্ত পর্যায়ে। নাচ, গান ও অভিনয়—এ তিনটি বিষয়ের পারদর্শিতা বিবেচনা করা হয় এই প্রতিযোগিতায়। বিজয়ীরা পুরস্কার হিসেবে নগদ অর্থের পাশাপাশি আরটিভির নাটকসহ নানা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন। সুযোগ পাবেন ডাবর ভাটিকার বিজ্ঞাপনে অংশ নেওয়ারও।

আরটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ন কবির বাবলু বলেন, ‘ক্যাম্পাস স্টার একটি ব্যতিক্রমী রিয়ালিটি শো হিসেবে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। শিক্ষার্থীদের অনেক সুপ্ত প্রতিভা রয়েছে। এই শোর মাধ্যমে তারা প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পাচ্ছে।’

ডাবর বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ব্রজেশ কুমার বলেন, ‘১৯৮৪ সালে ডাবর প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে ১৩০টি দেশে আমাদের পণ্য রয়েছে। ২০০৩ সাল থেকে বাংলাদেশে ডাবরের যাত্রা শুরু হয়। চুলের জন্য ডাবরের কমপ্লিট সলিউশন আছে। আমরা চেয়েছিলাম, ক্যাম্পাস থেকে ট্যালেন্টদের খুঁজে বের করতে। আমরা তাদের প্ল্যাটফর্ম করে দেওয়ার চেষ্টা করছি।’

আরটিভির প্রধান নির্বাহী সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, ‘ক্যাম্পাস থেকে আমরা গুণী পারফরমার খুঁজে আনছি। আশা করছি, এখান থেকে ভবিষ্যতের গুণী শিল্পী বের হয়ে আসবে। তাদের নিজ নিজ মেধায় তারা জায়গা করে নেবে। তবে ডাবর ভাটিকাকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা