kalerkantho

রবিবার । ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ১০ রবিউস সানি ১৪৪১     

ছাত্রলীগের অবরোধ শিথিল

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় পরিস্থিতি আরো বেগতিক হওয়ার আশঙ্কা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় পরিস্থিতি আরো বেগতিক হওয়ার আশঙ্কা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ছাত্রলীগের একাংশের ডাকা অনির্দিষ্টকালের অবরোধ শিথিল করা হয়েছে। প্রায় ১৫ ঘণ্টা পর গতকাল সোমবার সকাল ১১টায় অবরোধ শিথিল করার ঘোষণা দেন চবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সিএফসি গ্রুপের নেতা রেজাউল হক রুবেল। এদিকে অবরোধের প্রথম দিনে ক্যাম্পাস থেকে নগরীর উদ্দেশে শিক্ষক বাস ছেড়ে যেতে পারেনি। তবে শাটল ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল খুবই কম। এ ছাড়া শিক্ষক বাস সময়মতো ছেড়ে না যাওয়ায় অধিকাংশ বিভাগে ক্লাস হয়নি। কয়েকটি বিভাগের পূর্বঘোষিত পরীক্ষাও স্থগিত করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার থেকে ক্লাস-পরীক্ষা ও বাস চলাচল স্বাভাবিক থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

অবরোধকারী সিএফসি গ্রুপ যদি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস অকারণে অস্থিতিশীল করে শিক্ষার পরিবেশে বিঘ্ন ঘটায়, তাহলে তাদের প্রতিহত করতে মাঠে নামবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন প্রতিপক্ষ ভিএক্স গ্রপের কর্মীরা। সিএফসি গ্রুপটি শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ও ভিএক্স গ্রুপ সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের অনুসারী হিসেবে ক্যাম্পাসে পরিচিত।

জানা যায়, আগের ঘটনার জেরে ভিএক্স গ্রুপের কর্মীরা সিএফসি গ্রুপের দুই নেতাকে মারধর করায় সিএফসি অনির্দিষ্টকালের অবরোধের ডাক দেয়। এতে পুরো ক্যাম্পাসে স্থবিরতা সৃষ্টি হয়। শিক্ষক বাস চলাচলের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. রাশেদুন নবী কালের কণ্ঠকে বলেন, অবরোধকারীরা বাসচালকদের হুমকি দেওয়ায় নিরাপত্তাঝুঁকির কারণে শিক্ষক বাস সকাল থেকে সময়মতো ক্যাম্পাস ছেড়ে যায়নি। তবে দুপুর থেকে রুটিনমতো বাস চলাচল শুরু করেছে। আজ থেকে শিক্ষক বাস চলাচল স্বাভাবিক থাকবে বলে জানান তিনি।

অবরোধের বিষয়ে চবি ছাত্রলীগ সভাপতি ও সিএফসি গ্রুপের নেতা রেজাউল হক রুবেল কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল ভাইয়ের নির্দেশ ও চট্টগ্রামে রাষ্ট্রপতির আগমন উপলক্ষে আমরা অবরোধ শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এস এম মনিরুল হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন, মারামারির ঘটনায় যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। অন্যদিকে গাড়ি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থাপনা ভাঙচুরকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। এ ছাড়া আজ মঙ্গলবার থেকে ক্লাস-পরীক্ষা ও শিক্ষক বাস চলাচল স্বাভাবিক থাকবে বলে জানান তিনি।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা