kalerkantho

বুধবার । ১৩ নভেম্বর ২০১৯। ২৮ কার্তিক ১৪২৬। ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

মাসুদা ভাট্টির মামলা

ব্যারিস্টার মইনুল আবার কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ব্যারিস্টার মইনুল আবার কারাগারে

সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির করা মানহানির মামলায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে আবারও কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেনের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন ব্যারিস্টার মইনুল। শুনানি শেষে আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আদালতের নির্দেশের পর ব্যারিস্টার মইনুলকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে তাঁকে কারাগারে প্রথম শ্রেণির মর্যাদা দেওয়ার আবেদন করার পরিপ্রেক্ষিতে কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন আদালত।

গত বছর ১৬ অক্টোবর একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের ‘টক শো’তে মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।

এ নিয়ে ২১ অক্টোবর ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আসাদুজ্জামান নুরের আদালতে মাসুদা ভাট্টি মানহানির অভিযোগে মামলা করেন। ওই দিনই আদালত মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। আবার মামলা দায়েরের পরপর সেদিনই হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করলে মইনুল হোসেনকে পাঁচ মাসের জন্য জামিন দেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের জামিন আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে জামিন বাতিল চেয়ে আবেদন করে। গত ১৮ আগস্ট আপিল বিভাগ জামিন বাতিল না করে বা জামিন না দিয়ে দুই সপ্তাহের মধ্যে ব্যারিস্টার মইনুলকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের নির্দেশনা মতে গতকাল ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। গতকাল আদেশে আদালত উল্লেখ করেন, মামলাটি মানহানির মামলা। কিন্তু ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন গণমাধ্যম বা ইলেকট্রনিকস মাধ্যমে যে বক্তব্য দিয়েছেন তার গুরুত্ব বিবেচনায় নিয়ে আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করলেন।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা