kalerkantho

সবিশেষ

উড়ন্ত বোর্ড দিয়ে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



উড়ন্ত বোর্ড দিয়ে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি

পায়ের নিচে ছোট্ট একটি বোর্ড লাগিয়ে মানুষ পাখির মতো এক জায়গা থেকে উড়তে উড়তে আরেক জায়গায় চলে যাবে—এর আগে এমন দৃশ্য বর্ণনা করা হয়েছে শুধু বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনিতে। কিন্তু সেটা যেন এখন বাস্তব হতে চলেছে। ফরাসি একজন উদ্ভাবক এমনটাই করে দেখিয়েছেন। পিঠে জ্বালানিভর্তি একটি ব্যাগ নিয়ে ছোট্ট একটি বোর্ডের ওপর দাঁড়িয়ে গোটা ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিয়ে তিনি এক দেশ থেকে চলে গেছেন আরেক দেশে।

তাঁর নাম ফ্র্যাঙ্কি জাপাটা। বয়স ৪০। পাখিও না আবার বিমানও নয়—এরকম যে বোর্ডের ওপর দাঁড়িয়ে তিনি উড়ে গেছেন, এর নাম ফ্লাইবোর্ড বা উড়ন্ত বোর্ড। ফ্রান্সের ক্যালে শহরের কাছে সেনগাত থেকে রবিবার সকাল ৬টা ১৭ মিনিটে উড়াল দেন তিনি। ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিয়ে তিনি ব্রিটেনে ডোভারের সেন্ট মার্গারেট বেতে এসে নামেন। এ সময় বহু মানুষ তাঁকে করতালি দিয়ে স্বাগত জানায়।

কেরোসিনভর্তি একটি ব্যাকপ্যাক দিয়ে চালিত এ ফ্লাইবোর্ডে করে ২২ মাইল পথ পাড়ি দিতে তাঁর সময় লেগেছে ২২ মিনিট। এর আগে গত ২৫ জুলাইয়েও তিনি আরেকবার এভাবে চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। এর কারণ ছিল ব্যাকপ্যাকের জ্বালানি শেষ হয়ে যাওয়া। এবার আর সেই সমস্যা ছিল না। সমুদ্রের মাঝখানে একটি নৌকায় নেমে সেখানে নতুন করে জ্বালানি নিয়ে তিনি বাকিটা পথ উড়ে যেতে সক্ষম হয়েছেন। আগের বার জ্বালানি সংগ্রহের জন্যে নৌকায় নামতে গিয়ে তিনি সমুদ্রে পড়ে গিয়েছিলেন।

ফ্র্যাঙ্কি জাপাটা বলেন, ‘তিন বছর আগে আমরা একটি যন্ত্র বানিয়েছিলাম। আর এখন আমরা ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দিতে সক্ষম হলাম। এটা ঐতিহাসিক ঘটনা হিসেবে বিবেচিত হবে কি না—সে বিষয়ে আমি সিদ্ধান্ত নেওয়ার কেউ নই।’ সূত্র : বিবিসি।

মন্তব্য