kalerkantho

সংবাদের বিষয়ে ক্যাথারসিসের বক্তব্য

৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সংবাদের বিষয়ে ক্যাথারসিসের বক্তব্য

‘মালয়েশিয়ায় স্বপ্নভঙ্গ’ শিরোনামে কালের কণ্ঠে গত ২৩ জুলাই থেকে ২৮ জুলাই পর্যন্ত প্রকাশিত ধারাবাহিক ছয়টি প্রতিবেদনের একটির বিষয়ে ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল একটি লিখিত বক্তব্য দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, প্রতিবেদনে প্রতিবেদক মালয়েশিয়ায় কর্মরত বিপুলসংখ্যক কর্মীর মধ্যে ১৪১ জনের সাক্ষাৎকার নিয়েছেন এবং তাদের কর্মস্থলের বিভিন্ন দুর্দশা, অতিরিক্ত অভিবাসন ব্যয় গ্রহণ, বেতনপ্রাপ্তি এবং চুক্তি অনুযায়ী কাজ না দেওয়াসহ নানা তথ্য পরিবেশন করেছেন। এর মধ্যে ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক প্রেরিত কয়েকজন অভিবাসী কর্মীর কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত অভিবাসন ব্যয়ের চেয়ে অতিরিক্ত অভিবাসন ব্যয় গ্রহণের অভিযোগ আনা হয়েছে, যা আদৌ সঠিক নয়।

২৭ জুলাই প্রকাশিত ‘শ্রমিকের টাকা ১০ এজেন্সির পেটে’ শীর্ষক প্রতিবেদনের ‘দিয়েছি তিন লাখ, হলফনামায় লিখে নিয়েছে ৩৩,৫৭৫ টাকা’—এই অংশ সম্পর্কে রিক্রুটিং এজেন্সিটি দাবি করেছে, হলফনামায় যা লেখা আছে, তার অতিরিক্ত কোনো অভিবাসন ব্যয় ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল গ্রহণ করেনি। মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো এবং ফেরত আসার কারণে এই এজেন্সি থেকে আড়াই লাখ করে টাকা ফেরত দেওয়ার বিষয়ে ক্যাথারসিসের তৎকালীন ম্যানেজার জিয়া ইসলাম যে বিবৃতি দিয়েছেন তা সঠিক নয়। ২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি স্বাক্ষরিত G to G Plus-এর MOU-এর মাধ্যমে মালয়েশিয়া সরকারের ইচ্ছানুযায়ী বাংলাদেশ সরকার মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানোর জন্য যেভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে এবং অভিবাসন ব্যয় নির্ধারণ করে দেয়, ঠিক সেভাবেই কর্মী পাঠানো হয়েছে। সিন্ডিকেট গঠন এবং অতিরিক্ত অভিবাসন ব্যয় গ্রহণ সম্পর্কে উচ্চ আদালতে একটি রিট পিটিশনের শুনানি চলমান।

মন্তব্য