kalerkantho

সোমবার। ২৭ মে ২০১৯। ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬। ২১ রমজান ১৪৪০

জব্বারের বলিখেলার ১১০তম আসর

প্রতিশোধের লড়াইয়ে নতুন চ্যাম্পিয়ন শাহজালাল বলী

রাশেদুল তুষার, চট্টগ্রাম   

২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



প্রতিশোধের লড়াইয়ে নতুন চ্যাম্পিয়ন শাহজালাল বলী

চট্টগ্রামের লালদীঘিতে গতকাল জব্বারের ১১০তম বলিখেলার একটি মুহূর্ত। ছবি : কালের কণ্ঠ

ঠিক যেন গতবারের চিত্রনাট্যের প্লট। মঞ্চে সেই একই কুশীলব। বৈশাখের ভাপসা গরম উপেক্ষা করে শেষ বিকেলের সোনালি আলোয় লালদীঘির মঞ্চ ঘিরে গতকালও ছিল কয়েক হাজার মানুষ। পরিবর্তন বলতে শুধু চ্যাম্পিয়ন আর রানার-আপের নামের অদলবদল। ফাইনালে ২২ মিনিট ২৬ সেকেন্ডের লড়াইয়ে গতবারের পরাজয়ের প্রতিশোধ নিলেন শাহজালাল বলী। ঐতিহাসিক জব্বারের বলিখেলার ১১০তম আসরে গতবারের চ্যাম্পিয়ন চকরিয়া উপজেলার জীবন বলীকে হারিয়ে নতুন চ্যাম্পিয়ন হলেন কুমিল্লার হোমনা উপজেলার শাহজালাল বলী।

বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে শুরু হয় গতবারের দুই প্রতিপক্ষের নিজেকে প্রমাণ করার লড়াই। চেনা প্রতিপক্ষের বিপক্ষে আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণে পরস্পরকে শারীরিক শক্তি, কৌশল আর বুদ্ধির লড়াইয়ে ক্রমেই জমে ওঠে চমকপ্রদ দ্বৈরথ। তবে ফাইনাল লড়াই শুরু হওয়ার মাত্র পাঁচ মিনিট আগে সেমিফাইনালে ১২ মিনিটের লড়াইয়ে প্রতিপক্ষকে পরাস্ত করা গতবারের চ্যাম্পিয়ন জীবন বলীকে স্বাভাবিক কারণেই একটু ক্লান্ত মনে হচ্ছিল, যে কারণে সরাসরি আক্রমণে না গিয়ে বেশির ভাগ সময় তাঁকে রক্ষণাত্মক ভূমিকায় দেখা যায়। বোঝা যাচ্ছিল যে তিনি কৌশলের অংশ হিসেবেই বারবার উপুড় হয়ে শুয়ে থেকে বাংলাদেশ আনসারের ভাতাভুক্ত কুস্তিগীরশাহজালালকে আক্রমণের সুযোগ করে দিচ্ছিলেন।

কিন্তু জীবনের পর্যায়ক্রমিক এই কৌশল রেফারিদের কাছে নেতিবাচক হিসেবেই চিহ্নিত হয়। ১৫ মিনিটেও যখন খেলা সরাসরি নিষ্পত্তির লক্ষণ দেখা যাচ্ছিল না তখন রেফারিরা সিদ্ধান্ত নেন খেলায় পয়েন্ট গণনা করা হবে। শেষ পর্যন্ত ২২ মিনিট ২৬ সেকেন্ডে লড়াই শেষ হয় শাহজালাল বলীর জয়ের মাধ্যমে। তবে মাটিতে সরাসরি প্রতিপক্ষের পিঠ ঠেকাতে না পারলেও রেফারিদের সিদ্ধান্তে জীবন বলীকে ৩-১ পয়েন্টের ব্যবধানে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি আর সঙ্গে ২০ হাজার টাকার প্রাইজমানি বগলদাবা করেন তিনি। ২০১২ সাল থেকে এই বলী খেলায় অংশ নিলেও এবারই প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন শাহজালাল।

জীবনের পরাজয়ের কারণ বিশ্লেষণ করতে গিয়ে খেলা পরিচালনায় ৩০ বছরের অভিজ্ঞ রেফারি আবদুল মালেক বলেন, ‘জীবন বারবার শুয়ে পড়ছিল। সতর্ক করা সত্ত্বেও সে বলী ধরছিল না। এ কারণে পয়েন্টের ভিত্তিতে শাহজালালকে জয়ী ঘোষণা করা হয়।’ তবে কক্সবাজারের চকরিয়ায় একটি খাবারের দোকান পরিচালনা করা জীবন বলী খেলার মঞ্চেই রেফারিদের প্রতি পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ আনেন। অবশ্য পরে পরাজয় মেনে রানার-আপ ট্রফির সঙ্গে ১৫ হাজার টাকার প্রাইজমানি নিয়ে মঞ্চ ছাড়েন তিনি।

এর আগে চ্যালেঞ্জ রাউন্ডে লালু বলীকে হারিয়ে চকরিয়ার জীবন আর বজল বলীকে হারিয়ে কুমিল্লার হোমনা উপজেলার শাহজালাল সেমিফাইনালে ওঠেন। এ ছাড়া সেমিফাইনালে ওঠার পথে শাহাবুদ্দীন বলী হারান কাঞ্চন বলীকে এবং মো. হোসেন হারান মাহফুজ বলীকে।

সেমিফাইনালে শাহজালাল প্রতিপক্ষ হিসেবে পান মহেশখালীর শাহাবুদ্দীন বলীকে। প্রথম সেমিফাইনাল স্থায়ী হয় দুই মিনিট ৪৫ সেকেন্ড, জয়ী হন শাহজালাল। অন্য সেমিফাইনালে ১২ মিনিট লড়াই করেও জয়-পরাজয় নির্ধারিত না হওয়ায় পরে লটারির মাধ্যমে মহেশখালীর হোসেনকে পরাজিত করেন জীবন বলী।

বিকেল সোয়া ৪টায় চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনার মাহবুবর রহমান লালদীঘির ময়দানের বলী মঞ্চে যখন উদ্বোধনী বক্তব্য দিচ্ছিলেন তখন মঞ্চের বাঁ পাশে ঢাকের তালে নাচছিল ১১১ জন বলী। এর মধ্যে ৯৫ জন শৌখিন আর ১৬ জন খেলেন বলী চ্যালেঞ্জ বাউটে। ঢাকের সঙ্গে খঞ্জনির উদ্দীপনা জাগানিয়া আওয়াজে বলীদের সঙ্গে সঙ্গে হাজারো দর্শকও যেন হয়ে ওঠে উন্মাতাল। এর মধ্যেই শুরু হয়ে যায় বলিখেলা। শৌখিন বলীদের খেলা শেষে বিকেল ৫টায় শুরু হয় বলীদের আসল যুদ্ধ।

মন্তব্য