kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৮ জুলাই ২০১৯। ৩ শ্রাবণ ১৪২৬। ১৪ জিলকদ ১৪৪০

ইথিওপিয়ায় বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ১৫৬

এক দিনে ৩ বিমান দুর্ঘটনা ► কলম্বিয়ায় নিহত ১২, নিউ ইয়র্কে আহত ৩০

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ইথিওপিয়ায় বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ১৫৬

ছবি: ইন্টারনেট

ইথিওপিয়ান এয়ারলাইনসের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে এর ১৫৬ জন আরোহীর সবাই নিহত হয়েছে। আরোহীরা ৩৩টি দেশের নাগরিক বলে জানা গেছে। গতকাল রবিবার স্থানীয় সময় সকালে বিমানটি ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবা থেকে উড্ডয়নের কয়েক মিনিট পরই বিধ্বস্ত হয়। ফ্লাইটটি কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবি যাচ্ছিল। এ ছাড়া কলম্বিয়ায় স্থানীয় সময় শনিবার সকালে একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১২ জন আরোহীর সবাই নিহত হয়েছে। একই দিন নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি বিমানবন্দরে তুরস্কের একটি বিমান দুর্ঘটনায় পড়লে অন্তত ৩০ জন আহত হয়।

ইথিওপিয়ার সরকারি গণমাধ্যম জানায়, সরকারি বিমান সংস্থা ইথিওপিয়ান এয়ারলাইনসের বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি আদ্দিস আবাবার বোলি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সকাল ৮টা ৩৯ মিনিটে নাইরোবির উদ্দেশে উড্ডয়ন করে। কিন্তু উড্ডয়নের ছয় মিনিট পর আদ্দিস আবাবা থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরের বিসোপতু শহরের কাছে তুলু ফারা গ্রামে বিধ্বস্ত হয়। নতুন বিমানটির কোনো ত্রুটি ছিল না এবং আবহাওয়াও পরিষ্কার ছিল বলে জানা গেছে। ফলে দুর্ঘটনার কারণ অনুমান করা সম্ভব হয়নি।

ইথিওপিয়ার সরকারি বিমান সংস্থা ইথিওপিয়ান এয়ারলইনস এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘আমরা এই মর্মে নিশ্চিত করছি যে আমাদের নির্ধারিত ইটি ৩০২ ফ্লাইটটি আজ আদ্দিস আবাবা থেকে নাইরোবি যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে। পরে ইথিওপিয়ার এফএএনএ ব্রডকাস্টিং করপোরেশন এক প্রতিবেদনে জানায়, বিমানটির যাত্রীদের মধ্যে কেউ বেঁচে নেই। ধারণা করা হচ্ছে, ওই ফ্লাইটে ১৪৯ জন যাত্রী ও আটজন ক্রু ছিলেন।

নিহত যাত্রী ও ক্রুদের জাতীয়তা সম্পর্কে এয়ারলাইনসের পক্ষ থেকে কোনো তথ্য সরবরাহ করা হয়নি। তবে বিমানটিতে ৩৩টি দেশের নাগরিক ছিল বলে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে। নাইরোবিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া জাতিসংঘ পরিবেশ কর্মসূচির বার্ষিক সম্মেলনের ঠিক আগে এ দুর্ঘটনা ঘটল। আফ্রিকার সবচেয়ে বড় এয়ারলাইনসটির ওই ফ্লাইটে সম্মেলনের উদ্দেশে রওনা দেওয়া ব্যক্তিরা থাকতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির স্থানীয় প্রতিবেদকরা জানান, গত বছর ব্র্যান্ড নিউ বিমানটি সরবরাহ করে বোয়িং কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া রাজধানীর আবহাওয়াও পরিষ্কার ছিল। প্রতিবেদকরা আরো জানান, ফুলু ফারা গ্রামে ঘটনাস্থলের বিশাল এলাকাজুড়ে বিমানটির ধ্বংসাবশেষ ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল। উদ্ধারকারীরা বিভিন্ন স্থান থেকে যাত্রীদের দেহাবশেষ সংগ্রহ করে।

এক প্রত্যক্ষদর্শী বিবিসিকে বলেছে, ৭৩৭ ম্যাক্স-৮ মডেলের বিমানটি মাটিতে পড়ে ভয়াবহভাবে আগুন ধরে যায়। তীব্র আগুনের কারণে কেউ কাছে যেতে পারছিল না। সব কিছুই পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

প্রসঙ্গত, মাত্র পাঁচ মাস আগে ইন্দোনেশিয়ায় বোয়িংয়ের একই মডেলের আরেকটি বিমান বিধ্বস্ত হয়। লায়ন এয়ারের ওই উড়োজাহাজটির ১৯০ আরোহীর সবাই নিহত হয়েছিল।

কলম্বিয়ায় দুর্ঘটনা : অন্যদিকে লাতিন আমেরিকার দেশ কলম্বিয়ায় শনিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে একটি যাত্রীবাহী ছোট বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১২ জন আরোহীর সবাই নিহত হয়। নিহতদের মধ্যে স্থানীয় এক মেয়র ও তাঁর পরিবারের সদস্য এবং বিমানটির মালিকও রয়েছেন।

দুই ইঞ্জিনবিশিষ্ট আমেরিকার তৈরি ডগলাস ডিসি-৩ এয়ারক্রাফটটি কলম্বিয়ার সান জোস ও ভিলাভিসেসিও শহরের মাঝামাঝিতে বিধ্বস্ত হয়। বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পরপরই আগুন ধরে যায়। সিএনএন জানায়, সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে বিমানটি থেকে জরুরি অবতরণের জন্য বার্তা পাঠানো হয়। পরে এর ধ্বংসাবশেষ ভিলাভিসেনসিও শহরের কাছে লা বেনদিসিওন গ্রামে পাওয়া যায়।

কলম্বিয়ার অ্যারোনটিকান সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানায়, ‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে বিমানটিতে কেউ বেঁচে নেই। বিমানটির ধ্বংসাবশেষ ভিলাভিসানসিও শহরের কাছে পাওয়া যায়। নিহতদের মধ্যে তারিয়ারা শহরের মেয়র ডরিস ভিলেজ, তাঁর স্বামী ও কন্যা রয়েছেন। এ ছাড়া বিমানটির মালিক ও পাইলট হেইমি ক্যারিলো ছিলেন। দুর্ঘটনায় কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইভান দাগ শোক প্রকাশ করেছেন। 

অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের নিই ইয়র্কের জন এফ কেনেডি বিমানবন্দরে তুরস্কের টারকিশ এয়ারলাইনসের একটি বিমান দুর্যোগের কবলে পড়লে এর ৩০ যাত্রী আহত হয়। ৩২৬ জন যাত্রী ও ২১ জন ক্রু নিয়ে বিমানটি তুরস্কের ইস্তাম্বুল থেকে রওয়া দেয়। স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ৩৫ মিনিটে নিউ ইয়র্কে অবতরণের ৪০ মিনিট আগে দুর্যোগের কবলে পড়লে জরুরি অবতরণের জন্য বিমানটি থেকে বার্তা পাঠানো হয়। পরে কেনেডি বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করার সময় যাত্রীরা আহত হয়।

কর্মকর্তারা জানান, যাত্রীদের জখম গুরুতর কিছু নয়। শুধু একজনের পা ভেঙে গেছে। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে বিমানটি আকাশে কী ধরনের দুর্যোগে পড়েছিল তা জানানো হয়নি। সূত্র : এএফপি, বিবিসি, ইউএসটুডে।

 

মন্তব্য