kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ নভেম্বর ২০১৯। ৩০ কার্তিক ১৪২৬। ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১     

ভূমি মন্ত্রণালয়

সম্পদের হিসাব দিলেন ১৭২০৮ কর্মী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সম্পদের হিসাব দিলেন ১৭২০৮ কর্মী

মন্ত্রীর নির্দেশে সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা দিয়েছেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের ১৭ হাজার ২০৮ জন কর্মী। তবে মন্ত্রণালয়ের ৩৬৮ জন কর্মী বিভাগীয় মামলায় সাময়িক বরখাস্ত এবং দীর্ঘমেয়াদি ছুটিতে থাকায় সম্পদের হিসাব দিতে পারেননি বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। গতকাল শনিবার কর্মীদের চূড়ান্ত বিবরণী প্রকাশ করা হয়েছে। 

জানা গেছে, ভূমি মন্ত্রণালয় অনিয়ম ও দুর্নীতি মুক্ত করার প্রাথমিক প্রয়াস হিসেবে গত ১২ জানুয়ারি দেশের সব কর্মীর সম্পদের হিসাব জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন ভূমি মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। সম্পদের হিসাব দেওয়ার জন্য কর্মীদের ৯০ দিন সময়ও বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। নির্দেশনার দুই মাসের মধ্যেই সারা দেশ থেকে সম্পদের হিসাব পাঠানো শুরু করে ভূমি মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী-কর্মকর্তারা। এসব হিসাব পর্যালোচনা করে দুর্নীতি কমাতে করণীয় ঠিক করবে মন্ত্রণালয়টি।

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ‘প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে আমি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। দ্রুত সময়ের মধ্যে কর্মচারীদের সম্পদের হিসাব গ্রহণই তার বড় প্রমাণ। এ ব্যাপারে সহযোগিতা করার জন্য আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সম্পদ বিবরণী দাখিলের ফলে অনিয়ম-দুর্নীতি করতে সবাই নিরুৎসাহিত হবেন বলে আমার বিশ্বাস।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘এখন থেকে সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিলের কর্মসূচি চলবে। নিয়মিত মনিটরিংয়ের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে ভূমি অফিস দুর্নীতিমুক্ত করা সম্ভব হবে।’

উল্লেখ্য, ভূমি মন্ত্রণালয়ের সেবা সহজ করতে দুর্নীতিমুক্ত করা ছাড়াও হটলাইন চালু, ভূমি সেবা সপ্তাহ ও ভূমি কর মেলা উদ্যাপন, অনলাইনে খতিয়ান সেবা, ই-নামজারি কর্মসূচি বাস্তবায়ন, কর্মীদের দক্ষতা বৃদ্ধি, ভূমি ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে অবহিতকরণ কার্যক্রম এবং ভূমিসেবা ডিজিটাইজেশনের আওতায় আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন মন্ত্রী।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী অনলাইন খতিয়ান অবমুক্তকরণ এবং ১২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা জেলায় শতভাগ ই-নামজারি কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ভূমি মন্ত্রী। সেবাটি সারা দেশে চালুর ঘোষণাও দেন মন্ত্রী।

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা