kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ১৭ অক্টোবর ২০১৯। ১ কাতির্ক ১৪২৬। ১৭ সফর ১৪৪১       

ট্রাকে রাখা লোহার বিম বাসে ঢুকে শেষ পাঁচ প্রাণ

পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় বৃদ্ধ নিহত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ট্রাকে রাখা লোহার বিম বাসে ঢুকে শেষ পাঁচ প্রাণ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে একটি ট্রাকে রাখা লোহার বিম পেছন থেকে আসা একটি বাসের ভেতরে ঢুকে বাসটির পাঁচ যাত্রীর প্রাণ গেছে। আহত হয়েছে ১০ বাসযাত্রী। গতকাল রবিবার ভোরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গাংরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বাসযাত্রীরা খুলনার খালিশপুর থেকে চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে মাইজভাণ্ডার শরিফে ওরসে যাচ্ছিল। একই দিন সড়ক দুর্ঘটনায় পঞ্চগড়ে একজন নিহত ও সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে পাঁচজন আহত হয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শী, থানা-পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে কালের কণ্ঠ’র নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

কুমিল্লা : নিহতরা হলেন খুলনার খালিশপুরের কাশিপুর গ্রামের সাদের আলীর ছেলে চায়না হিজড়া (৫০), আজগর আলীর স্ত্রী হাসি বেগম (৪০),

দিঘলিয়া উপজেলার চন্দ্রিমহল গ্রামের রুস্তম মোল্লার ছেলে আসলাম মোল্লা (৫০), শেরহাটি গ্রামের মোজাফ্ফর আলীর ছেলে সালাম মিয়া (৫২) ও সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার ঝাউডাঙ্গা গ্রামের আনোয়ার হোসেন (৪৫)।

চৌদ্দগ্রাম মিয়াবাজার মহাসড়ক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মঞ্জুরুল আলম জানান, শনিবার সন্ধ্যায় খালিশপুর থেকে ফটিকছড়ির মাইজভাণ্ডার দরবার শরিফের উদ্দেশে একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো-ব-১১-৫৯৪৫) যাত্রা করে। রবিবার ভোরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চৌদ্দগ্রামের জগন্নাথদীঘি ইউনিয়নের গাংরা বাজার এলাকায় লোহার ভিম বোঝাই একটি ট্রাকের পেছনে ধাক্কা লাগে বাসটির। এতে ট্রাকের বডির বাইরে বেরিয়ে থাকা ভিম বাসটির বাঁ পাশ ভেঙে ভেতরে ঢুকে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় চার বাসযাত্রীর। কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর আরেকজনের মৃত্যু হয়।

চৌদ্দগ্রাম ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ ইমাম হোসেন পাটোয়ারী জানান, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা আহতদের উদ্ধার শেষে স্থানীয় ক্লিনিক ও হাসপাতালে পাঠান। গাড়ি দুটি হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে নেওয়া হয়েছে। মহাসড়ক পুলিশের সার্জেন্ট মো. সৈকত জানান, লাশগুলো খালিশপুরে ও দিঘলিয়ায় পাঠানো হয়েছে। বাস ও ট্রাকের চালক পলাতক।

পঞ্চগড় : পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া মহাসড়কের পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের সামনে গতকাল দুপুরে ট্রাকচাপায় নিহত হন শামসুল হক (৬০) নামে এক বৃদ্ধ। তাঁর বাড়ি সদর উপজেলার হাড়িভাসা ইউনিয়নের সাহেব বাজার এলাকায়।

স্থানীয়রা জানায়, গতকাল সকালে শামসুল হক ছেলে পশিরুল ইসলামকে রক্ত দিতে পঞ্চগড় সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। রক্ত জোগাড় করে তিনি দুপুরে হাসপাতালের সামনে পাউবোর মসজিদে নামাজে যান। পরে হাসপাতালে ফিরতে হেঁটে মহাসড়ক পার হওয়ার সময় একটি পাথরভর্তি ট্রাক তাঁকে চাপা দেয়। পুলিশ ট্রাকটি আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছেন।

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) : উপজেলার কলকলিয়া-গলাখাই সড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় দুপুরে একটি যাত্রাবাহী লেগুনা গলাখাই এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে চার বছরের শিশুসহ পাঁচ যাত্রী আহত হন।

জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রুবেল আহমদ বলেন, ‘গুরুতর আহত নাজমুল হোসেন ও ফখর উদ্দিনকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্য আহতদের আমরা চিকিৎসা দিচ্ছি।’

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা