kalerkantho

বাণিজ্য মেলা

ছুটির দিনে ভিড় হলেও শুরু হয়নি কেনা-বেচা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ছুটির দিনে ভিড় হলেও শুরু হয়নি কেনা-বেচা

বাণিজ্য মেলার শুরুর প্রথম শুক্রবার মানুষের ভিড় ছিল লক্ষণীয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের চেনা স্থানেই চলছে এবারের বাণিজ্য মেলার ২৪তম আসর। জানুয়ারির ৯ তারিখ থেকে মেলা শুরু হলেও দেখা গেছে, গতকাল পর্যন্ত অনেক স্টলের গোছগাছ শেষ হয়নি। তবে দিনে দিনে বাড়ছে দর্শনার্থী ও ক্রেতার উপস্থিতি। গতকাল শুক্রবার ছুটির দিনে ক্রেতা-দর্শনার্থীর উপস্থিতি ছিল দেখার মতো। তবে প্রত্যাশিত বিক্রি-বাট্টা হয়নি বলে জানিয়েছে বিক্রেতারা।

মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, অনেক স্টলে এখনো ঢিমেতালে গোছানো হচ্ছে পণ্যসামগ্রী। অবশ্য স্টলগুলোর নির্মাণ-পর্ব শেষ। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই ক্রেতা-দর্শনার্থীরা ঘুরে ঘুরে দেখছে মেলার স্টলগুলো। পছন্দের পণ্যটিরও খোঁজ করছে। কোথায় পণ্যের দামে ছাড় দেওয়া হচ্ছে ক্রেতারা খুঁজে বেড়াচ্ছে সেসব স্টল। গতকাল মেলা শুরুর প্রথম প্রহরে ক্রেতা-দর্শনার্থীর সমাগম কিছুটা কম হলেও বিকেলে যথেষ্ট ভিড় দেখা গেছে।

মেলা প্রাঙ্গণের মূল ফটকের পাশেই ডেল্টা ফার্নিশার্সের প্যাভিলিয়ন। এই প্যাভিলিয়নে সাজসজ্জা, পণ্য গোছানোয় ব্যস্ত দেখা গেছে কর্মীদের। তার মধ্যেই অনেক দর্শনার্থী প্রবেশ করছিল প্যাভিলিয়নটিতে।

ওই প্যাভিলিয়নের বিক্রয়কর্মী সবুজ জানান, প্যাভিলিয়নটি যাতে দ্রুত ক্রেতা-দর্শনার্থীদের জন্য প্রস্তুত করা যায়, সে চেষ্টাই করছেন তাঁরা।

এদিকে গতকাল ছুটির দিনে মেলার খাবারের দোকানগুলোতে উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। মিরপুর থেকে মেলায় ঘুরতে আসা শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘স্ত্রী-বাচ্চাদের নিয়ে ঘুরতে এসেছি। আজকে শুধু দেখছি। তবে সবাইকে নিয়ে খাওয়াদাওয়া করেছি। ছুটির দিন উপভোগ করছি।’

ব্যবসায়ীরা বলছে, এখনো সেভাবে জমে ওঠেনি বাণিজ্য মেলা। মেলার তিন দিন পার হলেও প্রত্যাশিত বিক্রি-বাট্টা এখনো শুরু হয়নি। এই তিন দিন ধরে যারা মেলায় এসেছে তাদের বেশির ভাগ দর্শনার্থী। দেখেশুনে দরদাম করে ফিরে যাচ্ছে। অল্পসংখ্যক ক্রেতা কেনাকাটা করেছে। গতকাল ধানমণ্ডি থেকে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মেলায় এসেছিলেন আফরোজা

বেগম। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘মেলায় কোথায় নতুন কী পণ্য আছে তার খোঁজ নিচ্ছি। এখনই কেনার ইচ্ছা নেই। সবাই মিলে দেখব, ঘুরব, খাওয়াদাওয়া করব। মেলার শেষ দিকে অনেক পণ্যে ছাড় থাকে। ওই সময়টায় কেনাকাটা করব।’

মেলার গেট ইজারাদার প্রতিষ্ঠান মীর ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর শহিদুল আলম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘এখনো সেভাবে মেলা জমে ওঠেনি। দিন যত গড়াবে, ক্রেতা-দর্শনার্থীর উপস্থিতি তত বাড়বে।’

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা