kalerkantho

শনিবার । ১ অক্টোবর ২০২২ । ১৬ আশ্বিন ১৪২৯ ।  ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

১৩ আগস্ট, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মাসবুক হয়েছে মনে করে দাঁড়িয়ে গেলে

প্রশ্ন : কেউ নামাজের সব রাকাত পাওয়া সত্ত্বেও নিজেকে মাসবুক ভেবে ইমামের সালামের পর দাঁড়িয়ে কিরাত পড়ার আগে স্মরণ হলো যে সে পুরো নামাজ পেয়েছে। এখন তার ওপর সাহু সিজদা ওয়াজিব হবে?

হাফিজ, চাঁদপুর

উত্তর : নিজেকে মাসবুক ভেবে ইমামের সালামের পর দাঁড়িয়ে যাওয়ায় তার ওপর সিজদায়ে সাহু ওয়াজিব হবে। (হিন্দিয়া : ১/১২৯, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৪/২২১)

 

নারীরা মসজিদের মুতাওয়াল্লি হতে পারবে কি

প্রশ্ন : আমরা সাত বোন, আমার কোনো ভাই নেই। আমার বাবা আমাদের মসজিদের জন্য কিছু জমি ওয়াকফ করেছেন।

বিজ্ঞাপন

কিছু দিন আগে তিনি ইন্তেকাল করেন। তিনি জীবিত থাকাকালীন মসজিদের মুতাওয়াল্লি ছিলেন। আমাদের মসজিদের ওয়াকফ দলিলে উল্লেখ আছে, ‘মুতাওয়াল্লির মৃত্যুর পর তাঁর গোত্রের যেকোনো ধর্মপ্রাণ ব্যক্তি পরবর্তী মুতাওয়াল্লির দায়িত্ব নিতে পারবে। ’

প্রশ্ন হলো, আমরা কি আমাদের বাবার ঔরসজাত কন্যাসন্তান হিসেবে যে কেউ একজন আল্লাহর ঘর মসজিদের মুতাওয়াল্লির দায়িত্ব নিতে পারব? আমরা কি আমাদের উপযুক্ত সন্তান বা স্বামীর দ্বারা মসজিদের মুতাওয়াল্লির কাজ পরিচালনা করতে পারব? জানালে কৃতজ্ঞ হবো।

ন্যান্সি, উত্তরা

উত্তর : মুতাওয়াল্লির পুত্রসন্তান না থাকলে মেয়েদের থেকে যে যোগ্যতাসম্পন্ন সৎ ও আমানতদার সে মুতাওয়াল্লির পদে অধিষ্ঠিত হতে পারে। তবে শর্ত হলো, মেয়ে নিজের প্রতিনিধি, উপযুক্ত সন্তান বা স্বামীর মাধ্যমে কার্য সম্পাদন করাতে হবে, পর্দার বিধান লঙ্ঘন করে দায়িত্ব পালন করা জায়েজ হবে না। (রদ্দুল মুহতার : ৪/৩৮০, আল বাহরুর রায়েক : ৫/২৩১, কেফায়াতুল মুফতি : ৭/১২৭)

 

দৃশ্যমান পাপকাজে অভ্যস্ত ব্যক্তিকে মসজিদের মুতাওয়াল্লি বানানো

প্রশ্ন : ফাসেক বা দৃশ্যমান কোনো পাপকাজে অভ্যস্ত ব্যক্তিকে মসজিদের মুতাওয়াল্লি বা সেক্রেটারি বানানো কি জায়েজ?

রিদওয়ানুল হক, যশোর

উত্তর : মসজিদ ইসলাম ধর্মের পবিত্র স্থান ও নিদর্শন। ইসলামের দৃষ্টিতে খোদাভীরু আলেম বা মসজিদ পরিচালনায় পারদর্শী আমলদার লোক থাকাবস্থায় বেআমল ফাসেক ব্যক্তিকে এসব দ্বিনি প্রতিষ্ঠানের মুতাওয়াল্লি বা কমিটির সদস্য বানানো যাবে না। (আল বাহরুর রায়েক : ৫/২২৬, কেফায়েতুল মুফতি : ৭/২০৫, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৮/১৬৩)

 



সাতদিনের সেরা