kalerkantho

মঙ্গলবার। ৯ আগস্ট ২০২২ । ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১০ মহররম ১৪৪৪

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

২ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পুনরায় জামাত হলে তাতে অংশগ্রহণ

প্রশ্ন : যদি কোনো ব্যক্তি মসজিদে এসে জামাত না পায়। কিন্তু দেখে, যেকোনো কারণে নামাজ পুনরায় পড়তে হচ্ছে, তাহলে সে ব্যক্তি ওই দোহরানো নামাজের জামাতে শরিক হতে পারবে কি?

ইসমাইল, পটুয়াখালী

উত্তর : উল্লিখিত অবস্থায় দেখতে হবে যে কী কারণে নামাজ দোহরানো হচ্ছে। যদি কোনো ওয়াজিব বা সাহু সিজদা ছুটে যাওয়ার কারণে নামাজ পুনরায় পড়া হয়, তাহলে নতুন কেউ তাতে শরিক হলে তার নামাজ হবে না। আর যদি কোনো ফরজ ছুটে যাওয়ার কারণে হয়, তাহলে আগন্তুক ব্যক্তি শরিক হতে পারবে।

বিজ্ঞাপন

(রদ্দুল মুহতার : ১/৪১৮, হাশিয়াতুত তাহতাভি : ১৩৪, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৪৪১)

 

হজ ফরজ হওয়ার পর অসুস্থ হয়ে গেলে

প্রশ্ন : আমার বাবার ওপর কয়েক বছর আগেই হজ ফরজ হয়েছে। কিন্তু হজ করার আগেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এখন তাঁর পক্ষে হজ করা সম্ভব নয়। বাবার ওপর এখনো কি হজ ফরজ, নাকি তা রহিত হয়েছে?

ইয়াকুব তানিম, গলাচিপা, পটুয়াখালী

উত্তর : যদি কোনো ব্যক্তির ওপর হজ ফরজ হওয়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়ে, তাহলে এই অবস্থায় তার ওপর হজ ফরজ থাকে। এমতাবস্থায় নিজে হজে যেতে সম্পূর্ণ অক্ষম হয়ে পড়লে অন্যের মাধ্যমে বদলি হজ করিয়ে নিতে হবে। (আল-মুহিতুল বোরহানি : ২/৪১৭; ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৫/৫০৫)

 

অজু ছুটে যাওয়ার পর লজ্জায়  নামাজ না ছাড়া

প্রশ্ন : নামাজের মধ্যে অজু ভেঙে গেলে লজ্জায় নামাজ ত্যাগ না করলে কোন ধরনের গুনাহ হয়? এ গুনাহ থেকে বাঁচার জন্য ইসলামে কোনো পন্থা আছে কি?

সাইফুল ইসলাম, নেত্রকোনা

উত্তর : নামাজের মধ্যে অজু ভেঙে গেলে নামাজ ত্যাগ না করলে বড় ধরনের গুনাহ হয়। বহু ওলামায়ে কিরাম বিনা অজুতে নামাজ পড়লে ঈমান চলে যাওয়ার আশঙ্কা ব্যক্ত করেছেন। তাই এ ধরনের পরিস্থিতিতে পতিত হলে নামাজ ছেড়ে দেবে। গুনাহ থেকে বাঁচার জন্য বেশি মুসল্লিকে কষ্ট না দিয়ে বের হওয়া সম্ভব হলে বের হয়ে অজু করবে। পুনরায় নামাজে শামিল হবে। আর নামাজ শেষ হয়ে গেলে একাকী নামাজ পড়ে নেবে। বের হওয়া সম্ভব না হলে নামাজ ছেড়ে দিয়ে নিজ জায়গায় বসে থাকবে। (হিদায়া : ১/২৪৯, আপকে মাসায়েল আওর উনকা হল : ২/৩২৬)

 

 



সাতদিনের সেরা