kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১১ আগস্ট ২০২২ । ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ । ১২ মহররম ১৪৪৪

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

১ জুলাই, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



সার্ভিসিং বিল থেকে ড্রাইভারকে কিছু দেওয়া

প্রশ্ন : আমি একটি গাড়ি সার্ভিসিং কম্পানির মালিক। বিভিন্ন ড্রাইভার আমার কাছে এসে গাড়ি ঠিক করে। আমি বাজারদরে সার্ভিসিং করি। গাড়ির মালিকের কাছ থেকে যত টাকা নিই, তত টাকার ভাউচার করি।

বিজ্ঞাপন

এবং গাড়ি সার্ভিসিংয়ের লভ্যাংশ থেকে ড্রাইভারকে কিছু টাকা খুশি হয়ে বখশিশ দিই। এভাবে খুশি হয়ে ড্রাইভারকে বখশিশ দিলে তা জায়েজ হবে কি? যদি ড্রাইভার আমার কাছ থেকে বখশিশ চেয়ে নেয়, তাহলে কি জায়েজ হবে?

বেলাল, ধোলাইখাল

উত্তর : প্রশ্নোক্ত অবস্থায় আপনি খুশি হয়ে ড্রাইভারকে বখশিশ দিতে পারবেন। তবে ড্রাইভারের জন্য চেয়ে নেওয়ার অধিকার নেই। এমনকি সে চাইলে আপনিও তাকে দিতে বাধ্য নন। হ্যাঁ, স্বেচ্ছায় দিলে অবৈধ হবে না। (রদ্দুল মুহতার : ৫/৩৬২, আল মুহিতুল বুরহানি : ৫/৩৬৮, ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়া : ১৬/৬১৮)

 

নাম পরিবর্তন করতে আকিকার বিধান

প্রশ্ন : কোনো শিশুর আকিকা দিয়ে নাম রাখার পর কোনো কারণে ওই নাম পরিবর্তন করা হলে নতুন করে আকিকা দিতে হবে কি?

মোশতাক আহমদ, মৌলভীবাজার

উত্তর : নবজাতক শিশুর জন্য একবার আকিকা করা মুস্তাহাব। নাম পরিবর্তন করলে আকিকা পুনরায় দেওয়ার কোনো নিয়ম নেই। (ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১২/১৬৩)

 

জমি বিক্রি করে হজ করা

প্রশ্ন : জনৈক ব্যক্তির এই পরিমাণ জমি আছে, যা থেকে দু-এক বিঘা বিক্রি করলে তিনি হজ করতে পারেন এবং তাঁর পরিবারেরও এতে কোনো সমস্যা হবে না। কিন্তু তাঁর ওয়ারিশরা জমি বিক্রির ব্যাপারে নারাজ। প্রশ্ন হলো, এই ব্যক্তির ওপর কি হজ ফরজ?

হাবিবুর রহমান সোহাগ, ফরিদগঞ্জ, চাঁদপুর।

উত্তর : প্রশ্নে বর্ণিত অবস্থায় যদি দুই বিঘা জমি বিক্রি করে হজের কাজ সম্পাদন করা সম্ভব হয় এবং অবশিষ্ট সম্পদ তাঁর পরিবারের সবার জীবিকার জন্য যথেষ্ট হয়, তবে উল্লিখিত ব্যক্তির ওপর হজ আদায় করা ফরজ। এতে তাঁর ওয়ারিশদের অনুমতির কোনো প্রয়োজন নেই। (ফাতাওয়ায়ে আলমগিরি : ১/২১৮; ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৫/৫০৫)

 

নামাজ মাকরুহ হলে কী ধরনের ক্ষতি হয়

প্রশ্ন : আমরা জানি যে নামাজে কিছু কাজ করলে নামাজ মাকরুহ হয়ে যায়। মাকরুহ কাকে বলে?

আব্দুল হালিম, বরিশাল।

উত্তর : অকাট্য দলিল দ্বারা নিষিদ্ধ প্রমাণিত বস্তুকে মাকরুহ বলা হয়, যা করা গুনাহ। তবে সেই গুনাহ হারাম কাজের মতো নয়। (আত তারিফাতুল ফিকহিয়্যাহ, পৃ : ৫০৩, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৪৫১)

 



সাতদিনের সেরা