kalerkantho

রবিবার । ৩ জুলাই ২০২২ । ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ । ৩ জিলহজ ১৪৪৩

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

২১ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



বাঁ হাত ও পায়ে মেহেদি লাগানো

প্রশ্ন : অনেকে মেহেদিকে পবিত্র মনে করে। তাই বাঁ হাত-পা ইত্যাদি মেহেদি লাগানোকে গুনাহ মনে করে। প্রশ্ন হলো, বাঁ হাতে বা পায়ে মেহেদি ব্যবহার করা কি নাজায়েজ? বাঁ হাতে কিংবা পায়ে মেহেদি লাগালে কি গুনাহ হবে?

হানিফ সোহেল, নোয়াখালী

উত্তর : নারীদের জন্য যেকোনো হাতে বা পায়ে মেহেদি ব্যবহারের অনুমতি আছে। বিজ্ঞ আলেমদের বিশুদ্ধ মতানুযায়ী, রাসুল (সা.)-এর ইন্তেকালের আগ পর্যন্ত চুল ও দাড়ি মোবারক মিলে সর্বমোট ১৭টি চুল সাদা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন

তাই চুল বা দাড়িতে মেহেদির খিজাব লাগানোর প্রয়োজন হয়নি। অতএব রাসুল (সা.)-এর নিজ দাড়িতে মেহেদি লাগানোর কথাটি সঠিক নয়। তবে তিনি সাহাবায়ে কিরামকে প্রয়োজনে চুল-দাড়িতে মেহেদি ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছিলেন। (আল বাহরুর রায়েক : ৮/১৮৩, আদ্দুররুল মুখতার : ৬/৪২২, রদ্দুল মুহতার : ৬/৪২২, বুখারি : ৩৫৪৭, মুসলিম : ২৩৪১, আবু দাউদ : ৪২০৪, আপকে মাসায়েল আওর উনকা হল : ৭/১৭৩)

 

শিশুপুত্রের নামে জমি কেনা

প্রশ্ন : আমার বয়স যখন পাঁচ বছর, তখন আমার বাবা আমার নামে দলিল করে জমি কেনেন। এখন ২০ বছর পর এসে তিনি ওই জমি আমার অন্য ভাইকে দিতে চাইছেন। প্রশ্নে হলো, শিশুর নামে জমি কিনলে ওই শিশু কি ওই জমির মালিক হয়ে যায়? পরবর্তী সময়ে বহু বছর পর বাবা চাইলে কি তাঁর অন্য ছেলেকে ওই জমি দিতে পারেন?

শাহজাহান, বরিশাল

উত্তর : বাবা তার কোনো ছেলের জন্য শিশুকালে দলিল করে জমি কিনলে ছেলে ওই মালিক হয়ে যায়। পরবর্তী সময়ে বাবার জন্য ওই জমি অন্য ছেলেকে দেওয়া জায়েজ নয়। (রদ্দুল মুহতার : ৬/৭২৬, ফাতাওয়ায়ে খলিলিয়া : ২৬৯, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১১/১০৩)

 

ওয়াক্তিয়া নামাজে হাদিসে বর্ণিত সুরা না পড়া

প্রশ্ন : পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে সুন্নত কিরাত পড়ার জন্য পবিত্র কোরআনের যে সুরা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে, যেমন—ফজর নামাজের সুন্নত কিরাত হলো, সুরা হুজুরাত থেকে সুরা বুরুজ পর্যন্ত, এ ক্ষেত্রে নির্ধারিত স্থান থেকে পড়লে সুন্নত আদায় হবে, নাকি কোরআনের যেকোনো সুরা থেকে ওই পরিমাণ পড়লে কিরাতের সুন্নত আদায় হয়ে যাবে?

সাইফুর রশিদ, যশোর

উত্তর : পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে যে ওয়াক্তের জন্য যে সুরা নির্বাচন করা হয়েছে, এসব সুরার আয়াত পরিমাণ অন্য সুরা থেকে তিলাওয়াত করলেও কারো কারো মতে সুন্নত আদায় হয়ে যাবে। তবে ওমর (রা.) কর্তৃক নির্দেশিত হওয়ায় নির্বাচিত সুরাগুলো পাঠ করাই উত্তম। সর্বোপরি এই সুরাগুলো নামাজে পাঠ করা সুন্নতে জায়েদা বা অতিরিক্ত সুন্নত। এর ব্যতিক্রম হলেও নামাজ হবে। (তিরমিজি, হাদিস : ৩০৬, আদ্দুররুল মুখতার : ১/৫৪০, হিন্দিয়া : ১/৭৭, এমদাদুল আহকাম : ১/৫৮২, কেফায়াতুল মুফতি : ৩/৪৫২)

 



সাতদিনের সেরা