kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩০ জুন ২০২২ । ১৬ আষাঢ় ১৪২৯ । ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

১৮ মে, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অজুর শেষে সূর্যের দিকে তাকিয়ে দোয়া পড়া

প্রশ্ন : অনেকে বলে, অজুর শেষে সূর্য যখন যেদিকে থাকবে সেদিকে ফিরে দোয়া পাঠ করবে। এ কথাটি কি সত্য?

মেহেদি হাসান, যশোর

উত্তর : অজুর পর দোয়া পড়ার কথা বিশুদ্ধ হাদিস দ্বারা প্রমাণিত। আকাশপানে তাকিয়ে তা পড়ার কথাও হাদিসে পাওয়া যায়। তবে পশ্চিম দিকে বা সূর্যের সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই।

বিজ্ঞাপন

(তিরমিজি, হাদিস : ৫৫, মুসনাদে আহমদ : ১/২৭৪, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৫৩)

 

নাবালকের আজানের বিধান

প্রশ্ন : নাবালক শিশু আজান দিলে আজান শুদ্ধ হবে কি?

নয়ন, বরিশাল

উত্তর : নাবালক ছেলের বোধশক্তি পরিপক্ব হলে এবং আজান শুদ্ধভাবে দেওয়ার যোগ্যতা অর্জন করলে তার আজান শুদ্ধ হবে। (তুহফাতুল ফুকাহা : ১/১১১, হিন্দিয়া : ১/৫৪, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/১৮৫)

 

নামাজে মোবাইল ফোন বন্ধ করার পদ্ধতি

প্রশ্ন : অনেক সময় নামাজে দাঁড়ানোর সময় মোবাইল বন্ধ করতে ভুলে যাই। নামাজের মধ্যে কল এলে মোবাইল ফোন বন্ধ করা যাবে কি? যদি বন্ধ করতে কোনো অসুবিধা না হয়, তাহলে তার পদ্ধতি কী?

শাহাদাত তিমির, বগুড়া

উত্তর : তিন-চার সেকেন্ড সময়ের ভেতর এক হাতে মোবাইল বন্ধ করা সম্ভব হলে নামাজে মোবাইল বন্ধ করার অনুমতি আছে। বেশি সময়ের প্রয়োজন হলে এর অনুমতি নেই। (রদ্দুল মুহতার : ১/৪২৫, আহসানুল ফাতাওয়া : ৩/৪১৮, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৪৮৭)

 

বায়ুরোগে আক্রান্ত ব্যক্তির করণীয়

প্রশ্ন : জনৈক ব্যক্তি পেটে অধিক গ্যাস হওয়ার কারণে দীর্ঘ সময় অজু রাখতে পারে না। কখনো ১০-১৫ মিনিট এবং কখনো এর চেয়ে কম রাখতে পারে। পাঁচ ওয়াক্ত ফরজ নামাজের মধ্যে দুই-তিন ওয়াক্ত জামাতের পর আবার একা আদায় করতে হয়। এমতাবস্থায় জামাতে নামাজ পড়া তার ওপর ওয়াজিব কি না? জামাতের আগে একাকী নামাজ আদায় করলে সে গুনাহগার হবে কি না?

মাসুদ, খিলগাঁও

উত্তর : বায়ু রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি যদি ১০-১৫ মিনিট বা এর চেয়ে কিছু কম সময় অজু রাখতে পারে যেমন প্রশ্নে উল্লেখ করা হয়েছে, তাহলে ওই ব্যক্তি জামাত শুরু হওয়ার আগে অজু করে জামাতের সহিত নামাজ আদায় করবে। আর যদি জামাতে শরিক হয়ে নামাজ পড়ার ক্ষেত্রে বায়ু বের হওয়ার প্রবল আশঙ্কা থাকে তাহলে ঘরে একাকী নামাজ পড়ার অনুমতি আছে। এতে সে গুনাহগার হবে না। বরং নিয়তের দ্বারা জামাতে নামাজ পড়ার সওয়াব পাবে। (আদ্দুররুল মুখতার : ১/৫৫৫, রদ্দুল মুহতার : ১/৫৫৫, আহসানুল ফাতাওয়া : ৩/২৮২)

 



সাতদিনের সেরা