kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ মাঘ ১৪২৮। ২০ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দ্বিতীয় জামাতে ইকামতের বিধান

প্রশ্ন : কোনো মসজিদে জামাত হয়ে যাওয়ার পর যদি দ্বিতীয় জামাত হয় বা একাকী কেউ নামাজ পড়ে তাহলে পুনরায় ইকামত দিতে হবে কি?

রাশেদুল ইসলাম, ইসলামপুর, ঢাকা

উত্তর : যে মসজিদে নির্দিষ্ট ইমাম-মুয়াজ্জিনের উপস্থিতিতে সময়মতো জামাতে নামাজ আদায় করা হয়, ওই মসজিদে দ্বিতীয় জামাত করা মাকরুহ। তা সত্ত্বেও যদি কেউ জামাত করে অথবা একাকী নামাজ আদায় করে তাহলে উভয় অবস্থায় ইকামত ছাড়া নামাজ পড়বে। ইকামত দেওয়া মাকরুহ হবে। (রাদ্দুল মুহতার : ১/৩৯৫, মাজমুআতুল ফাতাওয়া : ১/২৯৮)

 

নামাজ অবস্থায় মোবাইল বন্ধ করা

প্রশ্ন : নামাজরত অবস্থায় মোবাইল বন্ধ করা যাবে কি? এ ব্যাপারে ইসলাম কী বলে?

তাকি, নারায়ণগঞ্জ

উত্তর : নামাজিদের মনোযোগ যাতে নষ্ট না হয় সে জন্য মসজিদে প্রবেশ করার আগে মোবাইল বন্ধ করা অত্যন্ত জরুরি। যদি ভুলবশত বন্ধ না করা হয় এবং নামাজরত অবস্থায় রিং আসে, তবে তাড়াতাড়ি এক হাতে সম্ভব হলে মোবাইল বন্ধ করা ইসলামের দৃষ্টিতে দোষণীয় নয়। (ফাতহুল কাদির : ১/৩৫১, রদ্দুল মুহতার : ১/৬২৪, আহসানুল ফাতাওয়া : ৩/৪১৮, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৪৮৮)

 

একই শহরে ৪০ দিন থাকলে কসরের বিধান

প্রশ্ন : আমরা কয়েকজন এক চিল্লার জন্য একটি শহরে যাই। সেখানে প্রতি মসজিদে তিন দিন সময় লাগানো আমির সাহেবের নির্দেশ। এখন আমরা কসর করব, না পূর্ণ করব?

শিবলী, ঝিনাইদহ

উত্তর : প্রশ্নোক্ত জামাতের সদস্যরা একই শহরে ৪০ দিন অবস্থান করায় নামাজ পূর্ণ আদায় করবে, যদিও তাদের অবস্থান বিভিন্ন মসজিদে হয়ে থাকে। (তুহফাতুল ফুকাহা : ১/১৫১, হেদায়া : ১/৩৬৩)

 

পাওনা টাকা না নিয়ে সার্ভিস নেওয়া

প্রশ্ন : আমি অফিস থেকে যাতায়াত খরচ বাবদ কিছু টাকা পাই। ওই টাকা না তুলে আমি সমপরিমাণ বিলের টেলিফোন ব্যবহার অথবা সমপরিমাণ প্রিন্টিংয়ের কাজ করতে পারি কি না। এমনভাবে যাতে অফিস আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়।

বদিউল আলম, নোয়াখালী

উত্তর : কেউ যদি অন্যের কাছে নির্দিষ্ট বস্তু প্রাপ্য থাকে এবং ওই ব্যক্তি সে বস্তু প্রদান করার ইচ্ছা পোষণ করে ও অসম্মতি প্রকাশ না করে, এ অবস্থায় নির্দিষ্ট বস্তু ছাড়া ওই লোকের অন্য কোনো বস্তু হস্তগত করা বৈধ নয়। তাই আপনার যাতায়াত ভাড়ার নামে শুধু ওই পাওনাটাই আপনি গ্রহণ করতে পারেন। তার বিনিময়ে অন্য কোনো সম্পদ ব্যবহারের মাধ্যমে ওই পরিমাণ গ্রহণ করা অবৈধ হবে। হ্যাঁ, তবে কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে শুধু যাতায়াত ভাড়া পরিমাণ অন্য বস্তু ব্যবহার করা যেতে পারে। (আদ্দুররুল মুখতার : ৬/৪২২, কেফায়াতুল মুফতি : ৮/১৬৩)

 



সাতদিনের সেরা