kalerkantho

শুক্রবার । ৭ মাঘ ১৪২৮। ২১ জানুয়ারি ২০২২। ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা

১ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



নামাজ মাকরুহ হলে কী ধরনের ক্ষতি হয়?

প্রশ্ন : আমরা জানি যে নামাজে কিছু কাজ করলে নামাজ মাকরুহ হয়ে যায়। মাকরুহ কাকে বলে?

আব্দুল হালিম, বরিশাল

উত্তর : অকাট্য দলিল দ্বারা নিষিদ্ধ প্রমাণিত বস্তুকে মাকরুহ বলা হয়, যা করা গুনাহ। তবে সেই গুনাহ হারাম কাজের মতো নয়। (আত তারিফাতুল ফিকহিয়্যাহ, পৃ : ৫০৩, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৪৫১)

 

দ্বিতীয় স্ত্রীকে বেশি সম্পদ দেওয়া

প্রশ্ন : আমার বাবা তাঁর প্রথম স্ত্রী ও তাঁর ঘরের দুই সন্তানকে না জানিয়ে দ্বিতীয় স্ত্রীর নামে মূল সম্পদের ৬০ শতাংশ লিখে দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এতে তাঁর গুনাহ হবে কি?

শাব্বির আহমদ, ভাটারা

উত্তর : জীবদ্দশায় ওয়ারিশদের সম্পদ দিয়ে দেওয়া হেবা বা দানের অন্তর্ভুক্ত। আর ওয়ারিশদের জীবদ্দশায় হেবা বা দান করতে চাইলে বিহিত কোনো কারণ ছাড়া সবাইকে সমান দেবে। অন্যথায় দাতা গোনাহগার হবে। (রদ্দুল মুখতার : ৪/৪৪৪, বাদায়ে সানায়ে : ৬/১২৭, আহসানুল ফাতাওয়া : ৭/২৫৬)

 

নামাজের সময় শেষ হওয়ার উপক্রম হলে

প্রশ্ন : একজন ব্যক্তির ওপর গোসল ফরজ, সে নামাজের শেষ সময়ের ১০ মিনিট আগে জাগ্রত হয়েছে। এখন গোসল করতে গেলে নামাজের ওয়াক্ত বাকি থাকবে না। এমন পরিস্থিতিতে কিভাবে নামাজ আদায় করবে? আর কখনো এমন হয় যে তাঁর হাতে সময় আছে, কিন্তু পুকুরঘাটে তাঁর মা-বোন থাকায় সেখানে যেতে পারছে না, এ অবস্থায় করণীয় কী?

ইসহাক, সিরাজগঞ্জ

উত্তর : সময় কম থাকলে শুধু গোসলের ফরজগুলো তাড়াতাড়ি সেরে নামাজ পড়ে নেবে। যেমন—কুলি করে নাকে পানি দিয়ে পুকুরে একটি ডুব দেওয়ার জন্য আনুমানিক তিন মিনিট সময়ের প্রয়োজন। তারপর ফরজ ও ওয়াজিবসহ শুধু ফরজ আদায় করে নেবে। তবে যদি ততটুকু সময়ও না থাকে, তাহলে সময়ের সংকীর্ণতায় তায়াম্মুম করে ফরজ নামাজ আদায় করে নেবে এবং সঙ্গে সঙ্গে গোসল করে ওই নামাজ পুনরায় পড়ে নেবে।

যেকোনো উপায়ে ফরজ গোসল সেরে ওয়াক্তের ভেতরে তাড়াতাড়ি ফরজ নামাজ পড়ে নেবে। (রদ্দুল মুহতার : ১/২৩৪, আহসানুল ফাতাওয়া : ২/৫৪, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৭১)

 

অজু চলে যাওয়ার পর লজ্জায় নামাজ না ছাড়া

প্রশ্ন : নামাজের মধ্যে অজু ভেঙে গেলে লজ্জায় নামাজ ত্যাগ না করলে কোন ধরনের গুনাহ হয়? এ গুনাহ থেকে বাঁচার জন্য ইসলামে কোনো পন্থা আছে কি?

সাইফুল ইসলাম, নেত্রকোনা

উত্তর : নামাজের মধ্যে অজু ভেঙে গেলে নামাজ ত্যাগ না করলে বড় ধরনের গুনাহ হয়। বহু ওলামায়ে কেরাম বিনা অজুতে নামাজ পড়লে ঈমান চলে যাওয়ার আশঙ্কা ব্যক্ত করেছেন। তাই এ ধরনের পরিস্থিতিতে পতিত হলে নামাজ ছেড়ে দেবে। গুনাহ থেকে বাঁচার জন্য বেশি মুসল্লিকে কষ্ট না দিয়ে বের হওয়া সম্ভব হলে বের হয়ে অজু করবে। পুনরায় নামাজে শামিল হবে। আর নামাজ শেষ হয়ে গেলে একাকী নামাজ পড়ে নেবে। বের হওয়া সম্ভব না হলে নামাজ ছেড়ে দিয়ে নিজ জায়গায় বসে থাকবে। (হেদায়া : ১/২৪৯, আফকে মাসায়েল আওর উনকা হল : ২/৩২৬)

 



সাতদিনের সেরা