kalerkantho

বুধবার । ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ১ ডিসেম্বর ২০২১। ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

এসো শিখি ইসলাম-১৮

বিন ইবনে ও বিনতে কোথায় ব্যবহৃত হয়

আহমাদ রাইদ   

২৫ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



বিন/ইবনে/ইবন এবং বিনতে/বিনত শব্দগুচ্ছ কোনো ব্যক্তির কুনিয়ত বা উপনাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

আরবি ভাষার ব্যবহারবিধি অনুযায়ী এমন নাম সাধারণত মূল নাম হয় না। যদিও কারো কারো ক্ষেত্রে তা প্রসিদ্ধ নাম কিংবা পরিচিতি-জ্ঞাপন নাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এসব শব্দ দিয়ে নাম গঠনের অন্যতম শর্ত হলো নিম্নের যেকোনো শব্দ নামের শুরুতে হওয়া—

পিতৃবাচক শব্দ, মাতৃবাচক শব্দ, পুত্রবাচক, কন্যাবাচক, ভাতৃবাচক, ভগ্নিবাচক, পিতৃব্যবাচক ইত্যাদি। যেমন—খালিদ ইবনে ওয়ালিদ, আলী ইবনে আবি তালিব, হুসাইন ইবনে আলী (রা.)

বিন/ইবন/ইবনে অর্থ ছেলে বা পুত্র। ফারসি বানানরীতি অনুযায়ী ইবনে ব্যবহৃত হয়। আরবি ভাষারীতি অনুযায়ী, অবস্থাভেদে কখনো বিন এবং কখনো ইবন ব্যবহৃত হয়। যেমন—

মুহাম্মদ বিন আবদিল্লাহ। অর্থ আবদুল্লাহর ছেলে মুহাম্মদ (সা.)। আবদুল্লাহ ইবন/ইবনে আব্বাস। অর্থ আব্বাসের ছেলে আবদুল্লাহ (রা.)

আর বিনত/বিনতে শব্দের অর্থ মেয়ে। ফারসি বানানরীতি অনুযায়ী বিনতে (এ-কার দিয়ে) আর আরবি বানানরীতি অনুযায়ী বিনত ব্যবহৃত হয়।

যেমন—ফাতিমা বিনত/বিনতে মোহাম্মদ। অর্থ মুহাম্মদ (সা.)-এর মেয়ে ফাতিমা (রা.)

 

 



সাতদিনের সেরা