kalerkantho

সোমবার । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৯ নভেম্বর ২০২১। ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

দৈনন্দিন ইসলামী প্রশ্ন-উত্তর

১৯ অক্টোবর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ইমাম অনুচ্চ স্বরে তাকবির বলে ফেললে

প্রশ্ন : আমি আর আমার ভাই জামাতে নামাজ পড়ছিলাম। আমার ভাই ইমামতি করছিল। কিন্তু সে নামাজে ভুলবশত জোরে তাকবির না বলে আস্তে তাকবির বলে ফেলে। এতে কি সাহু সিজদা ওয়াজিব হবে?

নুর মুহাম্মদ, মাদারীপুর

উত্তর : ইমামের জন্য নামাজের তাকবির আওয়াজ করে বলা সুন্নত। নীরবে তাকবির বলে নামাজ শেষ করলেও নামাজ শুদ্ধ হয়ে যাবে। সাহু সিজদা ওয়াজিব হবে না। এ ধরনের ভুলে নামাজের কোনো ক্ষতি হয় না। (হালবি কাবির : ৪৫৫, আল মুহিতুল বুরহানি : ১/৩৩৮, আহসানুল ফাতাওয়া : ৩/২৬৬)

কসর কখন শুরু করবে?

প্রশ্ন : নিজ বাড়ি থেকে কতটুকু দূরত্বে গিয়ে কসর করবে? নিজ গ্রাম অতিক্রম করার পর, না থানা, না জেলা অতিক্রম করে? যদি দুই গ্রাম পরস্পর মিলিত থাকে তাহলে এর বিধান কী?

রাশেদুল ইসলাম, কুমিল্লা

উত্তর : নিজ গ্রামের আবাদি ও সীমা অতিক্রম করলে কসর শুরু করবে। আর একাধিক গ্রাম পরস্পর মিলে থাকলে তা অতিক্রম করার পর কসর আদায় করবে। (বাদায়েউস সানায়ে : ১/৯৩, আদ্দুররুল মুখতার : ২/১২১, রদ্দুল মুহতার : ২/১২১)

কাজের লোকেরা দাস-দাসী নয়

প্রশ্ন : বাংলাদেশে গোলাম-বাঁদির প্রথা আছে কি? বিভিন্ন পরিবারে যেসব কাজের মেয়ে রাখা হয় তাদের বাঁদি মনে করা বা বাঁদির মতো আচরণ করার ব্যাপারে ইসলামের বিধান কী?

ইবরাহিম, সিলেট

উত্তর : আমাদের দেশে বিভিন্ন পরিবারে যেসব কাজের মেয়ে রাখা হয় তারা ইসলামের দৃষ্টিতে বাঁদি নয়। শুধু কাজের মেয়ে বা চাকরানি। এদের বাঁদি মনে করে বাঁদির মতো আচরণ করা ইসলামের দৃষ্টিতে জঘন্য অপরাধ বলে গণ্য হবে। তাই এহেন কর্ম থেকে বিরত থাকা প্রত্যেক মুসলমানের নৈতিক দায়িত্ব ও ঈমানি কর্তব্য। (আল মুগনি : ৬/১১২, আল মওসুআতুল ফিকহিয়্যাহ : ২৩/১২, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১২/২৯৪)

নারীরা মসজিদের মুতাওয়াল্লি হতে পারবে কি?

প্রশ্ন : আমরা সাত বোন। আমার কোনো ভাই নেই। আমার বাবা আমাদের মসজিদের জন্য কিছু জমি ওয়াকফ করেছেন। কিছু দিন আগে তিনি ইন্তেকাল করেন। তিনি জীবিত থাকাকালীন মসজিদের মুতাওয়াল্লি ছিলেন। আমাদের মসজিদের ওয়াকফ দলিলে উল্লেখ আছে, ‘মুতাওয়াল্লির মৃত্যুর পর তাঁর গোত্রের যেকোনো ধর্মপ্রাণ ব্যক্তি পরবর্তী মুতাওয়াল্লির দায়িত্ব নিতে পারবে।’

প্রশ্ন হলো, আমরা কি আমাদের বাবার ঔরসজাত কন্যাসন্তান হিসেবে যে কেউ একজন আল্লাহর ঘর মসজিদের মুতাওয়াল্লির দায়িত্ব নিতে পারব? আমরা কি আমাদের উপযুক্ত সন্তান বা স্বামীর দ্বারা মসজিদের মুতাওয়াল্লির কাজ পরিচালনা করতে পারব? জানালে কৃতজ্ঞ হবো।

মাহমুদা আক্তার, গুলশান

উত্তর : মুতাওয়াল্লির পুত্রসন্তান না থাকলে মেয়েদের থেকে যে যোগ্যতাসম্পন্ন সৎ ও আমানতদার সে মুতাওয়াল্লির পদে অধিষ্ঠিত হতে পারে। তবে শর্ত হলো, মেয়ে নিজের প্রতিনিধি, উপযুক্ত সন্তান বা স্বামীর মাধ্যমে কার্য সম্পাদন করাতে হবে, পর্দার বিধান লঙ্ঘন করে দায়িত্ব পালন করা জায়েজ হবে না। (রদ্দুল মুহতার : ৪/৩৮০, আল বাহরুর রায়েক : ৫/২৩১, কেফায়াতুল মুফতি : ৭/১২৭)

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা



সাতদিনের সেরা