kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ আশ্বিন ১৪২৮। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৫ সফর ১৪৪৩

প্রশ্ন-উত্তর

৬ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সপ্তাহের কোন কোন দিন সালাতুত তাসবিহ পড়া যায়?

প্রশ্ন : এক ব্যক্তির কাছে শুনেছি, সালাতুত তাসবিহ শুক্রবার ছাড়া অন্য দিন পড়া যায় না। কথাটি কি সঠিক?

মো. আবুল খায়ের, পূর্ব ভাসানটেক, ঢাকা

উত্তর : সালাতুত তাসবিহ সপ্তাহের যেকোনো দিন পড়া যায়। নফল নামাজের নিষিদ্ধ সময় ছাড়া দিনের যেকোনো সময় পড়া যায়। (আবু দাউদ, হাদিস : ১২৯৭, তিরমিজি, হাদিস : ৪৮১, রদ্দুল মুহতার : ২/৪৭১)

 

ওয়াজিব নামাজের কাজা

প্রশ্ন : ওয়াজিব নামাজ কি কাজা করা যায়?

আবদুল্লাহ, খুলনা

উত্তর : ফরজ ও ওয়াজিব নামাজ নির্দিষ্ট সময়ে আদায় করতে না পারলে পরে তা কাজা করা আবশ্যক। তবে ওয়াজিব নামাজগুলোর মধ্যে ঈদের নামাজের কোনো কাজা নেই। হ্যাঁ, কোনো কারণে পুরো এলাকাবাসী ঈদের নামাজ সময়মতো পড়তে না পারলে পরের দিন সবাই মিলে তা পড়তে পারবে। (বাদায়েউস সানায়ে : ১/২৭৬)

 

‘ইনশাআল্লাহ’ বলে কসম করা

প্রশ্ন : আমি একদিন তাহাজ্জুদ নামাজ পড়ার ব্যাপারে বললাম যে আমি যদি আজ থেকে শেষ রাতে তাহাজ্জুদ নামাজ না পড়তে পারি, তাহলে আমি অবশ্যই এক শ রাকাত নফল নামাজ আদায় করব, ইনশাআল্লাহ। এখন যদি শেষ রাতে ঘুম না ভাঙার কারণে তাহাজ্জুদ পড়তে না পারি, তাহলে আমার এক শ রাকাত নফল নামাজ আদায় করা লাগবে কি?

তারেক রহমান, খিলগাঁও

উত্তর : ইসলামের দৃষ্টিতে কসমের বাক্যের সঙ্গে ‘ইনশাআল্লাহ’ বলা হলে ওই কসম সংঘটিত হয় না। তাই শেষ রাতে তাহাজ্জুদ নামাজ পড়তে না পারলে আপনার ওপর কাফফারা আসবে না। (তিরমিজি : ১/২৮০, ফাতহুল কাদির : ৪/৩৭৬)

 

নামাজে নারীদের পা দেখা গেলে নামাজ ভাঙবে?

প্রশ্ন : নামাজের ভেতর নারীদের পা সতর কি? সতর হলে কতটুকু দেখা গেলে নামাজ ভেঙে যাবে?

     মাঈন উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ

উত্তর : বিশুদ্ধ ও আমলযোগ্য মতানুসারে নামাজে নারীদের পা সতরের অন্তর্ভুক্ত নয়। তাই পা খোলা থাকলেও নামাজ শুদ্ধ হয়ে যাবে। (আল হিদায়া : ১/৭৬, আদ্দুররুল মুখতার : ১/৬৬)

 সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা



সাতদিনের সেরা