kalerkantho

শুক্রবার । ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮। ৩০ জুলাই ২০২১। ১৯ জিলহজ ১৪৪২

প্রশ্ন-উত্তর

১৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



একমাত্র কন্যার নামে সম্পদ লিখে দেওয়া

প্রশ্ন : আমি ঢাকার একটি অভিজাত এলাকার অধিবাসী এবং সেখানে নিজস্ব ফ্ল্যাটে আমার বসবাস। আমার একটিমাত্র কন্যাসন্তান। তাই আমার জীবদ্দশায় ফ্ল্যাটটি এককভাবে তার নামে লিখে দিতে চাই। শরিয়তের দৃষ্টিতে এর বিধান কী?

রতন চৌধুরী, ঢাকা

উত্তর : আপনার সম্পদ যাকে ইচ্ছা তাকে দিতে পারেন। তবে কোনো ওয়ারিশকে অকারণে বঞ্চিত করার ইচ্ছায় এরূপ করা গুনাহ। তাই অন্যের ক্ষতি করার ইচ্ছা না থাকলে আপনার মেয়েকে এককভাবে দেওয়াতে আপত্তি নেই। (আল বাহরুর রায়েক : ৭/৪৯০, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১১/৭৩)

 

অজুখানা ও গোসলখানা কি মসজিদের অন্তর্ভুক্ত?

প্রশ্ন : মসজিদের অজুখানা ও গোসলখানা কি মসজিদের অন্তর্ভুক্ত?

ইয়াকুব, চট্টগ্রাম

উত্তর : মূল মসজিদের কাঠামোতে অজুখানা ও গোসলখানা বানানোর অবকাশ নেই। যে স্থানে অজু ও গোসলখানা বানানো হয় তাকে মসজিদ বলার সুযোগ নেই; বরং এগুলো মাসালেহে মসজিদ তথা মসজিদের প্রয়োজনীয় জিনিস। (আল বাহরুর রায়েক : ৫/২১৫, ইমদাদুল মুফতিন : ৬৩৫, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৮/৪৮০)

 

চোরাই পথে আসা ওষুধের ব্যবসা

প্রশ্ন : ব্ল্যাক বা স্মাগলিংয়ের মাধ্যমে চোরাই পথে গোপনে ভারত থেকে যে ওষুধ বাংলাদেশে আসে সে ওষুধ ক্রয়-বিক্রয় করা কি বৈধ?

আরিফ, চাঁদপুর

উত্তর : ব্ল্যাক বা স্মাগলিং রাষ্ট্রীয়ভাবে নিষিদ্ধ। তাই এ পথে আনা ওষুধ বা অন্য দ্রব্য বেচাকেনার অনুমতি নেই। (রদ্দুল মুহতার : ৪/২৬৪, দুরারুল হুক্কাম : ৩/২০১, ফাতাওয়ায়ে ওসমানি : ৩/৮৯, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৯/৪৯৫)

 

পুকুরের মাছ না ধরে বিক্রি করা

প্রশ্ন : পুকুর থেকে মাছ না উঠিয়ে অনুমান করে ক্রয়-বিক্রয় করার বিধান কী? যদি নাজায়েজ হয় তাহলে পুকুরে মাছ রেখে ক্রয়-বিক্রয়ের কোনো বৈধ পন্থা আছে কি?

মাসুদ মোল্লা, খুলনা

উত্তর : পুকুরে পানির মধ্যে মাছ থাকাবস্থায় তা মোটেও হস্তান্তরযোগ্য নয়। তাই পুকুরের মাছ না ধরে বিক্রি করা জায়েজ হবে না। (হিন্দিয়া : ৩/১১৩, মাজমুআতুল ফাতাওয়া : ২/১৪০, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৯/৪৩৫)

 

মরা মাছ হালাল হওয়ার কারণ

প্রশ্ন : মৃত প্রাণীর গোশত হারাম; কিন্তু মরা মাছ হালাল। এটি হালাল হওয়ার ব্যাপারে কোনো দলিল আছে কি না?

রফিকুল্লাহ, লাকসাম

উত্তর : মৃত মাছ খাওয়া হালাল হওয়ার কথা পবিত্র কোরআনের সুরা নাহলের ১৪ নম্বর আয়াতে এবং তিরমিজি শরিফে বর্ণিত রাসুল (সা.)-এর হাদিস দ্বারা প্রমাণিত। (সুরা : নাহাল, আয়াত : ১৪, তিরমিজি, হাদিস : ৬৯, হিন্দিয়া : ৫/৪২৮, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১১/৩৮৯)

 

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা