kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

প্রশ্ন-উত্তর

১৯ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



অমুসলিমের হাঁচির জবাব দেওয়ার নিয়ম

প্রশ্ন : কোনো অমুসলিম হাঁচি দিলে তার হাঁচির উত্তর দেওয়া যাবে? দিলে কিভাবে দিতে হবে?

মুনতাসির খান, ঢাকা

উত্তর : অমুসলিম ব্যক্তির হাঁচির উত্তরে মুসলিমদের উত্তরের ন্যায় ‘ইয়ারহামুকাল্লাহ’ (অর্থাৎ আল্লাহ তোমাকে রহম করুন) বলবে না। বরং অমুসলিম ব্যক্তি হাঁচি দিয়ে ‘আলহামদুলিল্লাহ’ বললে তদুত্তরে ‘ইয়াহদিকুমুল্লাহু ওয়া ইউসলিহু বা-লাকুম’ (অর্থাৎ আল্লাহ তাআলা তোমাকে সঠিক পথ প্রদর্শন করুন ও তোমার অবস্থা ভালো করুন) বলবে। (ফাতহুল বারী : ১০/৬০৪, উমদাতুল কারি : ২২/২২৬)

 

মাইকে নামাজ পড়া যাবে?

প্রশ্ন : রাসুল (সা.)-এর যুগে তো মাইক ছিল না। মাইকের মাধ্যমে আজান ও নামাজ পড়ানোতে কোনো সমস্যা আছে?

আকরামুল হক চৌধুরি, চট্টগ্রাম

উত্তর : আজান ও নামাজে প্রয়োজন অনুপাতে মাইক ব্যবহারের অনুমতি শরিয়তে আছে। (আহসানুল ফাতাওয়া : ২/২৯৪, কিফায়াতুল মুফতি : ৭/২১৪, আলাতে মুকাব্বিরুস সাউত কে শরয়ী আহকাম পৃ. ৩৪-১২০, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/২১৫, ২৩০)

 

সালামের জবাব দেওয়ার পর পুনরায় সালাম দিলে

প্রশ্ন : এক ব্যক্তি অন্য ব্যক্তিকে সালাম দিল। যাকে সালাম দেওয়া হলো সে সালামের জবাব দেওয়ার পর আবার যদি পাল্টা সালাম দেয়, তাহলে এই সালামের বিধান কী?

আকরাম খান, ইসলামপুর, ঢাকা

উত্তর : মুসলমান পরস্পর দেখা হলে সালাম দেওয়া সুন্নত ও অন্য মুসলমানের জন্য তার জবাব দেওয়া ওয়াজিব। উত্তরদাতার পুনরায় সালাম দেওয়া ইসলামের কোনো বিধানের আওতায় পড়ে না। তাই যদি কেউ পাল্টা সালাম দেয়, সে সালামের উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন নেই। (হিন্দিয়া : ৫/৩২৫, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১২/৯৭)

 

বন্ধকি মোটরসাইকেল ব্যবহার করা বা মালিককে ভাড়া দেওয়া

প্রশ্ন : যদি কোনো ব্যক্তি আমার কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে বন্ধকস্বরূপ তার একটি মোটরসাইকেল বা তিন কাঠা জমি আমার কাছে রেখে দেয়, তাহলে ওই মোটরসাইকেল বা তিন কাঠা জমি আমার জন্য ব্যবহার করা বা তা থেকে উপকৃত হওয়া বৈধ হবে কি? মোটরসাইকেল যদি মালিককেই ভাড়া দিই, তা কি আমার জন্য বৈধ হবে?

রিয়াজ মাহমুদ, বটতলী, লক্ষ্মীপুর

উত্তর : ইসলামের দৃষ্টিতে বন্ধকি জিনিস থেকে কোনো প্রকার ফায়দা গ্রহণ করা সুদ খাওয়ার নামান্তর। তাই প্রশ্নে বর্ণিত বন্ধকি মোটরসাইকেল অথবা জমির মালিক বা অন্য কারো কাছে ভাড়া দিয়ে যেকোনো প্রকার ফায়দা গ্রহণ করা জায়েজ হবে না। (আদ্দুররুল মুখতার : ৬/৪৮২, হিন্দিয়া : ৫/৪৬৪, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ১১/৫১)

 

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা