kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রশ্ন-উত্তর

২৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



ফরজ গোসলের দোয়া মুখে উচ্চারণ করা

প্রশ্ন : ফরজ গোসল করার সময় বিসমিল্লাহ ও অজু-গোসলের নিয়ত বা দোয়া মুখে উচ্চারণ করে পড়া কি জরুরি?

     আরিফুর রহমান, আশুলিয়া

উত্তর : ফরজ গোসলের শুরুতে অন্তরে নিয়ত করা এবং হাত ধোয়ার আগে মুখে উচ্চারণ করে বিসমিল্লাহ পড়া সুন্নত। অজুর দোয়াও মুখে উচ্চারণ করে পড়া সুন্নত। (ফাতহুল কাদির : ১/২৬৫, রদ্দুল মুহতার : ১/১০৮, আল জাওহারাতুন নিয়ারাহ : ১/১০, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/৭১)

 

জুমার দ্বিতীয় আজানের জবাব দিতে হবে?

প্রশ্ন : জুমার দিন ইমাম সাহেবের খুতবা দেওয়ার আগে যেই দ্বিতীয় আজান দেওয়া হয়, সেই আজানের জবাব দেওয়ার বিধান কী?

     মাওলানা আব্দুল কাইয়ুম, বিপুলাসা, কুমিল্লা

উত্তর : জুমার দ্বিতীয় আজানের জবাব মৌখিক দেওয়া না দেওয়ার ব্যাপারে ফিকহবিদদের মতানৈক্য থাকলেও নির্ভরযোগ্য মতানুযায়ী মৌখিক না দেওয়াই সঠিক। তা সত্ত্বেও কেউ দিতে চাইলে মনে মনে উত্তর দিতে পারে। (আদ্দুররুল মুখতার : ১/২৯৯, ফাতাওয়ায়ে মাহমুদিয়া : ২/৫৮, কিফায়াতুল মুফতি : ৩/২৬৬, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৩/২০৯)

 

বিমানের যাত্রীদের সূর্য দেখা অবস্থায় ইফতার

প্রশ্ন : যদি কোনো ব্যক্তি রমজান মাসে বিমানে সফর করে আর বিমানটি যে দেশের ওপর দিয়ে অতিক্রম করছে সে দেশের সময় অনুযায়ী সেখানে ইফতারের সময় হয়ে গেছে কিন্তু বিমানের জানালা দিয়ে এখনো সূর্য দেখা যাচ্ছে, এমতাবস্থায় তার জন্য ইফতার করা এবং মাগরিবের নামাজ পড়া জায়েজ হবে?

     আব্দুল্লাহ, নিউ ইয়র্ক

উত্তর : ইসলামের দৃষ্টিতে নামাজ ও রোজার ক্ষেত্রে ওই স্থানের সময় ধর্তব্য যে স্থানে সে উপস্থিত থাকে। সুতরাং প্রশ্নে উল্লিখিত অবস্থায় যেহেতু সে আকাশে ভ্রমণরত, তাই বিমান থেকে সূর্য দেখা যাওয়া পর্যন্ত ইফতার করা বা মাগরিবের নামাজ পড়া জায়েজ হবে না। তবে যদি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সূর্যাস্ত না হয়, তাহলে ২৪ ঘণ্টা পূর্ণ হওয়ার আগমুহূর্তে ইফতার করে নেবে এবং অন্যান্য দিনের সময়ের পার্থক্য হিসাব করে নামাজ আদায় করতে থাকবে। (রদ্দুল মুহতার : ২/৪২০, আহসানুল ফাতাওয়া : ৪/৭১, ফাতাওয়ায়ে ফকীহুল মিল্লাত : ৫/৪৩৪)

 

মুক্তাদির তাশাহুদ শেষ না হতেই ইমাম সালাম ফেরালে

প্রশ্ন : রমজানে হাফেজ সাহেবদের সঙ্গে তারাবি পড়ার সময় দেখা যায়, আমরা তাশাহুদ শেষ না করতেই তাঁরা সালাম ফিরিয়ে ফেলেন। এমতাবস্থায় আমরাও কি দরুদ না পড়েই সালাম ফেরাব, নাকি দরুদ পড়ে ফেরাব?

     নুরুল আমীন, চট্টগ্রাম

উত্তর : প্রশ্নে বর্ণিত অবস্থায় মুক্তাদিরা তাশাহুদ শেষ করেই সালাম ফেরাবে, দরুদ শরিফ পড়বে না। তবে ইমামের উচিত মুসল্লিদের দরুদ শরিফ শেষ করার সুযোগ দেওয়া। (রদ্দুল মুহতার : ১/৪৯৬)

 

সমাধান : ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা, ঢাকা



সাতদিনের সেরা