kalerkantho

রবিবার । ২৬ বৈশাখ ১৪২৮। ৯ মে ২০২১। ২৬ রমজান ১৪৪২

রোজা ফরজ হওয়ার কারণ

বেলায়েত হুসাইন   

২১ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



হিজরি ক্যালেন্ডারের নবম মাস পবিত্র রমজান। বাকি ১১ মাসের তুলনায় এ মাস অনন্য বৈশিষ্ট্যের অধিকারী। ইসলামের প্রধান ধর্মীয় গ্রন্থ পবিত্র কুরআনুল কারিম এ মাসে অবতীর্ণ হয়েছে। একই সঙ্গে এ মাসে লাইলাতুল কদর নামের এমন একটি রাত রয়েছে, পুণ্যে যা হাজার মাস থেকেও উত্তম। মহান আল্লাহ বলেন, ‘কদরের রাত হাজার মাস অপেক্ষা শ্রেষ্ঠ।’ (সুরা : কদর, আয়াত : ৩)

আল্লাহ তাঁর বান্দাদের এ মাস উপহারস্বরূপ দিয়েছেন। হাদিসে কুদসিতে আল্লাহ ইরশাদ করেন, ‘নিশ্চয়ই রোজা আমার জন্য, আর এর প্রতিদান স্বয়ং আমিই দেব।’ (সহিহ বুখারি ও মুসলিম)

উলামায়ে কেরাম রমজানের রোজা ফরজ হওয়ার বেশ কিছু কারণ উল্লেখ করেছেন। যেমন—আল্লাহ তাআলা রোজার মাধ্যমে বান্দার তাকওয়া এবং অন্তরে তাঁর ভয় নিরীক্ষা করেন, বান্দা যেন তাঁর নেয়ামতরাজি অনুধাবন করতে পারে, দরিদ্রদের প্রতি ধনীদের আচার-ব্যবহার কেমন হয় রোজার মাধ্যমে আল্লাহ তা-ও দেখেন। এ মাসে তো শয়তানকে বন্দি রাখা হয়—এ অবস্থায় বান্দা তার রবকে কতটুকু মান্য করে; নাকি আগের মতোই নিজ প্রবৃত্তির অনুকরণে গুনাহে লিপ্ত থাকে তা দেখতে পারেন। রমজানের মাধ্যমে আল্লাহ বান্দার ধৈর্য, নিয়মানুবর্তিতা, আমানতদারি ইত্যাদি উত্তম চরিত্রের গুণাবলি যাচাই করেন। টানা এক মাস রোজা রাখার মাধ্যমে বান্দার শরীর মজবুত ও সুস্থ-সবল হয়। তা ছাড়া রোজার অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো মুসলিম উম্মাহর ঐক্য। কেননা সব মত ও পথের মুসলিমই সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত আল্লাহর আদেশে রোজা রাখে, যা ইসলামী ঐক্যের সুন্দরতম একটি নিদর্শন।

রমজানের বেশ কিছু চাহিদা রয়েছে, যেগুলোর প্রতি যত্নবান হলে রোজা সুন্দর হয়। যেমন—সবার আগে নিয়ত পরিশুদ্ধ করা যে আমি একমাত্র আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্যই রোজা রাখছি এবং তাঁর থেকেই আমি এর প্রতিদান গ্রহণ করব। সঠিক সময়ে সাহরি ও ইফতার করাও রমজানের অন্যতম আদব। কোরআন তিলাওয়াত এবং যেকোনো নফল ইবাদতে নিমগ্ন থাকা, তাসবিহ-তাহলিল পাঠে সময় ব্যয় করা; অনর্থক কথাবার্তা, অনর্থক জিনিস দেখা এবং ছোট থেকে ছোট গুনাহ থেকেও বেঁচে থাকা; অন্যকে কোনোভাবেই গালি না দেওয়া, বরং সবার প্রতি সদয় ও সহানুভূতিশীল হওয়া এবং পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ সময়মতো জামাতের সঙ্গে আদায় করা—এ কাজগুলো করলে রোজা সুন্দর হবে এবং বান্দা ভিন্ন রকম এক আত্মিক প্রশান্তি অনুভব করবে ইনশাআল্লাহ!

 

আল মাউদু অবলম্বনে



সাতদিনের সেরা