kalerkantho

শনিবার । ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১। ১৪ রজব ১৪৪২

যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় শতাধিক শিক্ষার্থীর কোরআন হিফজ

বেলায়েত হুসাইন   

২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসলামী ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ অংশ সিরিয়া এখন যুদ্ধে ক্ষত-বিক্ষত। তবে দীর্ঘ যুদ্ধের মধ্যেও সিরীয় শিশুরা ইসলামী শিক্ষা থেকে বিমুখ হয়নি। দেশটির আজাজ শহর অন্তত সে কথাই প্রমাণ করে। চলতি শিক্ষাবর্ষের প্রথম কয়েক মাসে এই শহরে অন্তত ১০৫ জন শিক্ষার্থী হিফজ সম্পন্ন করেছে। শিশুদের এ কীর্তিতে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন শহরের অধিবাসীরা। গত ২৪ জানুয়ারি আজাজ শহরের ওমর বিন আবদুল আজিজ মসজিদে হিফজ সম্পন্নকারী শিশুদের বিশেষ সম্মাননা দিয়েছে তারা। এতে যাবতীয় আর্থিক পৃষ্ঠপোষকতা করেছে তুরস্কের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়। সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রদেশের উল্লেখযোগ্য মুফতি ও আলেম উপস্থিত ছিলেন। সিরিয়ায় তুর্কি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বিশেষ সমন্বয়ক শায়খ আবদুল কাদির বাকেরুগ্লু জানান, চলতি বছরের শুরু থেকে যে ১০৫ জন শিক্ষার্থী হাফেজ হয়েছেন তাঁদের সম্মাননায় অবদান রাখতে পেরে তুরস্ক গর্বিত। আমরা আশা করি, ২০২১ সালে সিরিয়ায় নয় শতাধিক শিক্ষার্থী পবিত্র কোরআন মুখস্থ করবে। তুর্কি ধর্ম মন্ত্রণালয় সব সময় এ অঞ্চলের শিক্ষা ও সংস্কৃতির উন্নয়নে অবদান রেখে চলছে এবং এটা অব্যাহত থাকবে।

আজাজ আলেপ্পোর প্রায় ৪৮ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত সিরিয়ার একটি শহর এবং এটি আজাজ প্রদেশের প্রাণকেন্দ্র। এখানে প্রায় ৭৫ হাজার নাগরিক বাস করে। ১৫ হিজরি মোতাবেক ৬৩৬ খ্রিস্টাব্দে মালিক ইবনে আশতার (রা.)-এর হাতে এটি স্বাধীন হয়। আলেপ্পো জয়ের পর এটি বিখ্যাত সাহাবি খালেদ বিন ওয়ালিদ ও আবু ওবায়দা ইবনুল জাররাহের শাসনাধীন ছিল। বর্তমানে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বিরোধী বিদ্রোহী অস্থায়ী সরকারের দখলে রয়েছে।

সূত্র : আনাদুলু এজেন্সি আরবি।

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা