kalerkantho

রবিবার । ১০ মাঘ ১৪২৭। ২৪ জানুয়ারি ২০২১। ১০ জমাদিউস সানি ১৪৪২

হাদিসের শিক্ষা

৬ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাদিসের শিক্ষা

মসজিদ-ই-নববীর ফজিলত

আবদুল্লাহ ইবনে জায়দ-মাজিনি (রা.) থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘আমার ঘর ও মিম্বারের মধ্যবর্তী স্থানটুকু জান্নাতের বাগানগুলোর একটি বাগান।’ (বুখারি, হাদিস : ১১৯৫)। জিয়াদের আজাদকৃত দাস কাযাআ (রা.) বলেন, আমি আবু সাঈদ খুদরি (রা.)-কে নবী (সা.) থেকে চারটি বিষয় বর্ণনা করতে শুনেছি, যা আমাকে আনন্দিত ও মুগ্ধ করেছে। তিনি বলেছেন, নারীগণ স্বামী কিংবা মাহরাম ব্যতীত দুই দিনের দূরত্বের পথে সফর করবে না। ঈদুল ফিতর ও ঈদুল আজহার দিনগুলোতে সিয়াম নেই। দুই (ফজর) নামাজের পর কোনো (নফল ও সুন্নত) নামাজ নেই। ফজরের পর সূর্যোদয় পর্যন্ত এবং আসরের পর সূর্যাস্ত পর্যন্ত। এবং ১. মসজিদুল হারাম ২. মসজিদুল আকসা এবং ৩. আমার মসজিদ ছাড়া অন্য কোনো মসজিদে (জিয়ারতের উদ্দেশ্যে) হাওদা বাঁধা যাবে না। (সফর করা যাবে না)। (বুখারি, হাদিস : ১১৯৭)

 

প্রথম বৈঠকে না বসলে সাহু সিজদা

আবদুল্লাহ ইবনে বুহায়না (রা.) বলেন, কোনো এক নামাজে আল্লাহর রাসুল (সা.) দুই রাকাত আদায় করে না বসে দাঁড়িয়ে গেলেন। মুসল্লিরা তাঁর সঙ্গে দাঁড়িয়ে গেলেন। যখন তাঁর নামাজ সমাপ্ত করার সময় হলো এবং আমরা তাঁর সালাম ফেরানোর অপেক্ষা করছিলাম, তখন তিনি সালাম ফেরানোর আগে তাকবির বলে বসে বসেই দুটি সিজদা করলেন। অতঃপর সালাম ফেরালেন। (বুখারি, হাদিস : ১২২৪)

আবদুল্লাহ ইবনে বুহাইনাহ (রা.) বলেন, আল্লাহর রাসুল (সা.) জোহরের দুই রাকাত আদায় করে দাঁড়িয়ে গেলেন। দুই রাকাতের পর তিনি বসলেন না। নামাজ শেষ হয়ে গেলে তিনি দুটি সিজদা করলেন এবং অতঃপর সালাম ফেরালেন। (বুখারি, হাদিস : ১২২৫)

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা