kalerkantho

শনিবার। ২ মাঘ ১৪২৭। ১৬ জানুয়ারি ২০২১। ২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জিজ্ঞাসা

বাজারে ঘুরে ঘুরে নামাজের জন্য ডাকা যাবে কি

জুলকারনাইন, গজারিয়া, মুন্সীগঞ্জ

২৮ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



আমাদের এলাকায় একজন দরিদ্র ব্যক্তি চোঙা হাতে নিয়ে হাটে-বাজারে ঘুরে বেড়ান এবং মানুষকে নামাজের আহ্বান জানান। কিন্তু কেউ কেউ এতে বিরক্তি প্রকাশ করেন, উপহাস করেন। এভাবে মানুষকে নামাজের দিকে ডাকার বিধান কী?

 

উত্তর : শরিয়তের দৃষ্টিতে মানুষকে ভালো কাজের আহ্বান জানানো পুণ্যের কাজ। কোরআন ও হাদিসে এ কাজের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং যারা এমন কাজ করবে তাদের পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তার চেয়ে উত্তম কথা আর কার হতে পারে, যে আল্লাহর দিকে ডাকে, সৎকর্ম করে এবং বলে, আমি আনুগত্য স্বীকারকারীদের একজন।’ (সুরা : হা-মিম-সাজদা, আয়াত : ৩৩)

রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি হিদায়াতের দিকে আহ্বান করল; তার আহ্বানে যত মানুষ সারা দেবে সে এর প্রতিদান পাবে। এতে অনুসরণকারীদের প্রতিদান একটুও কমবে না।’ (সহিহ মুসলিম, হাদিস : ২৬৭৪)

আলী (রা.)-কে একবার নবীজি (সা.) বলেন, ‘তোমার মাধ্যমে একজন লোকও হিদায়াতপ্রাপ্ত হওয়া তোমার জন্য আরবের লাল উটনি অপেক্ষা উত্তম।’ (সহিহ বুখারি, হাদিস : ২৯৪২)

অন্যদিকে ইসলাম, ইসলামের নিদর্শন ও ইসলামের প্রতি আহ্বান নিয়ে উপহাস করা কবিরা গুনাহ। কখনো কখনো এমন কাজে মানুষের ঈমানও নষ্ট হয়ে যায়। পবিত্র কোরআনে এমন ব্যক্তিদের সঙ্গ ত্যাগের নির্দেশ দিয়ে বলা হয়েছে, ‘কিতাবে তিনি তোমাদের ওপর অবতীর্ণ করেছেন যে, যখন তোমরা শুনবে, আল্লাহর আয়াত অস্বীকার করা হচ্ছে এবং তা নিয়ে বিদ্রুপ করা হচ্ছে, তখন তোমরা তাদের সঙ্গে বসবে না। যতক্ষণ না তারা অন্য আলোচনা করে। নতুবা তোমরা তাদের মতোই গণ্য হবে। আল্লাহ মুনাফিক কাফির সবাইকে জাহান্নামে একত্র করবেন।’ (সুরা : নিসা, আয়াত : ১৪০)

এমন ব্যক্তিদের বন্ধুত্বের ব্যাপারে মহান আল্লাহ বলেন, ‘হে মুমিনরা! যাদেরকে কিতাব দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে যারা তোমাদের দ্বিনকে হাসি-তামাশা ও ক্রীড়ার বস্তু হিসেবে গ্রহণ করে তাদের এবং অবিশ্বাসীদের বন্ধুরূপে গ্রহণ কোরো না। যদি তোমরা মুমিন হও, তবে আল্লাহকে ভয় করো।’ (সুরা : মায়িদা, আয়াত : ৫৭)

অন্য আয়াতে সাধারণভাবে মুমিনদের নিয়ে উপহাস করতে নিষেধ করা হয়েছে। ইরশাদ হয়েছে, ‘অস্বীকারকারীদের জন্য সুশোভিত করা হয়েছে পার্থিব জীবন। তারা মুমিনদের নিয়ে উপহাস করে। কিয়ামতের দিন মুমিনরা তাদের চেয়ে মর্যাদাবান হবে। আল্লাহ যাকে খুশি অপরিমিত রিজিক দান করেন।’ (সুরা : বাকারা, আয়াত : ২১২)

সুতরাং কেউ হাটে-বাজারে ঘুরে ঘুরে নামাজের আহ্বান জানালে তাকে সম্মান ও সমীহ করা উচিত এবং যারা তাকে নিয়ে উপহাস করে তাদের সঙ্গ পরিহার করা আবশ্যক।

গ্রন্থনায় : মুফতি আবদুল্লাহ নুর

মন্তব্য