kalerkantho

রবিবার। ৩ মাঘ ১৪২৭। ১৭ জানুয়ারি ২০২১। ৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

হাদিসের শিক্ষা

২৬ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেষরাতের দোয়া কবুল হয়

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, মহামহিম আল্লাহ তাআলা প্রতি রাতের শেষ তৃতীয়াংশ অবশিষ্ট থাকাকালে পৃথিবীর নিকটবর্তী আসমানে অবতরণ করে ঘোষণা করতে থাকেন; কে আছে এমন, যে আমাকে ডাকবে? আমি তার ডাকে সাড়া দেব। কে আছে এমন যে আমার নিকট চাইবে। আমি তাকে তা দেব। কে আছে এমন যে আমার নিকট ক্ষমা চাইবে? আমি তাকে ক্ষমা করব। (বুখারি, হাদিস : ১১৪৫)

 

অজু করলেই নামাজ পড়ার ফজিলত

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী (সা.) একদা ফজরের নামাজের সময় বিলাল (রা.)-কে জিজ্ঞেস করলেন, হে বিলাল! ইসলাম গ্রহণের পর সর্বাধিক সন্তুষ্টিব্যঞ্জক যে আমল তুমি করেছ, তার কথা আমার কাছে ব্যক্ত করো। কেননা জান্নাতে (মিরাজের রাতে ) আমি আমার সামনে তোমার পাদুকার আওয়াজ শুনতে পেয়েছি। বিলাল (রা.) বলেন, আমার নিকট এর চেয়ে (অধিক) সন্তুষ্টিব্যঞ্জক হয় এমন কিছু তো আমি করিনি। দিন-রাতের যেকোনো প্রহরে আমি তাহারাত ও পবিত্রতা অর্জন করেছি, তখনই সে তাহারাত দ্বারা নামাজ আদায় করেছি, যে পরিমাণ নামাজ আদায় করা আমার তাকদিরে লেখা ছিল। (বুখারি, হাদিস : ১১৪৯)

 

নফল ইবাদতে কঠোরতা অপছন্দনীয়

আনাস ইবনে মালিক (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী (সা.) (মসজিদে) প্রবেশ করে দেখতে পেলেন যে দুটি স্তম্ভের মাঝে একটি রশি টাঙানো রয়েছে। তিনি জিজ্ঞেস করলেন, এ রশিটি কী কাজের জন্য? লোকেরা বলল, এটি জয়নবের রশি, তিনি (ইবাদত করতে করতে) অবসন্ন হয়ে পড়লে এটির সঙ্গে নিজেকে বেঁধে নেন। নবী (সা.) বলেন, না, এটা খুলে ফেলো। তোমাদের কারো প্রাণবন্ত থাকা পর্যন্ত ইবাদত করা উচিত। যখন সে ক্লান্ত হয়ে পড়ে তখন যেন সে বসে পড়ে। (বুখারি, হাদিস : ১১৫০)

 

মন্তব্য