kalerkantho

শনিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭। ২৮ নভেম্বর ২০২০। ১২ রবিউস সানি ১৪৪২

হাদিসের শিক্ষা

২৪ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুজন জামাত করলে মুক্তাদি ডান পাশে দাঁড়াবে

ইবনে আব্বাস (রা.) বলেন, একদা আমি আমার খালা মায়মুনা (রা.)-এর ঘরে রাত কাটালাম। আল্লাহর রাসুল (সা.) এশার নামাজ আদায় করে এলেন এবং চার রাকাত নামাজ আদায় করে শুয়ে পড়লেন। কিছুক্ষণ পর উঠে নামাজে দাঁড়ালেন। তখন আমিও তাঁর বাম পাশে দাঁড়ালাম। তিনি আমাকে তাঁর ডান পাশে নিয়ে নিলেন এবং পাঁচ রাকাত নামাজ আদায় করলেন। অতঃপর আরো দুই রাকাত নামাজ আদায় করে নিদ্রা গেলেন। এমনকি আমি তাঁর নাক ডাকার শব্দ শুনতে পেলাম। তারপর তিনি (ফজরের) সালাতের জন্য বের হলেন। (বুখারি, হাদিস : ৬৯৭)

 

নামাজে দুর্বল মুসল্লিদের বিবেচনা করতে হবে

আবু মাসউদ (রা.) বলেন, এক সাহাবি এসে বলেন, হে আল্লাহর রাসুল! আল্লাহর শপথ! আমি অমুকের কারণে ফজরের নামাজে অনুপস্থিত থাকি। তিনি (জামাতে) নামাজকে খুব দীর্ঘ করেন। আবু মাসউদ (রা.) বলেন, আমি আল্লাহর রাসুল (সা.)-কে নসিহত করতে গিয়ে সেদিনের মতো এত অধিক রাগান্বিত হতে আর কোনো দিন দেখিনি। তিনি বলেন, তোমাদের মাঝে বিতৃষ্ণা সৃষ্টিকারী রয়েছে। তোমাদের মধ্যে যে কেউ অন্য লোক দিয়ে নামাজ আদায় করে, সে যেন সংক্ষেপ করে। কেননা তাদের মধ্য দুর্বল, বৃদ্ধ ও হাজতওয়ালা লোকও থাকে।

(বুখারি, হাদিস : ৭০২)

 

একাকী নামাজে কিরাত দীর্ঘ পড়া উত্তম

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, তোমাদের কেউ যখন লোকদের নিয়ে নামাজ আদায় করে, তখন যেন সে সংক্ষেপ করে। কেননা তাদের মাঝে দুর্বল, অসুস্থ ও বৃদ্ধ আছে। আর কেউ যদি একাকী নামাজ আদায় করে, তখন ইচ্ছামতো দীর্ঘ করতে পারে। (বুখারি, হাদিস : ৭০৩)

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা