kalerkantho

মঙ্গলবার । ১১ কার্তিক ১৪২৭। ২৭ অক্টোবর ২০২০। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

হাদিসের শিক্ষা

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



হাদিসের শিক্ষা

তাহাজ্জুদের নামাজ পড়ার নিয়ম

ইবনে উমর (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, এক ব্যক্তি নবী (সা.)-কে প্রশ্ন করলেন, (তখন তিনি মিম্বারে ছিলেন) আপনি রাতের নামাজ কিভাবে আদায় করতে বলেন? তিনি বলেন, দুই রাকাত দুই রাকাত করে আদায় করবে। যখন তোমাদের কারো ভোর হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা হয় তখন সে আরো এক রাকাত আদায় করে নেবে। আর এটি তার পূর্ববর্তী নামাজকে বিতর করে দেবে। [নাফি (রহ.) বলেন] ইবনে উমর (রা.) বলতেন, তোমরা বিতরকে রাতের শেষ নামাজ হিসেবে আদায় করো। কেননা নবী (সা.) এ নির্দেশ দিয়েছেন।

(বুখারি, হাদিস : ৪৭২)

 

দ্বিনি সমাবেশ উপেক্ষা করা উচিত নয়

আবু ওয়াকিদ লায়সি (রা.) থেকে বর্ণিত, একদা আল্লাহর রাসুল (সা.) মসজিদে ছিলেন। এমতাবস্থায় তিনজন লোক এলেন। তাঁদের দুজন আল্লাহর রাসুল (সা.)-এর কাছে এগিয়ে এলেন আর একজন চলে গেলেন। এ দুজনের একজন সমাবেশে খালি স্থান পেয়ে সেখানে বসে পড়লেন। দ্বিতীয় ব্যক্তি তাদের পেছনে বসলেন। আল্লাহর রাসুল (সা.) কথাবার্তা থেকে অবসর হয়ে বলেন, আমি কি তোমাদের ওই তিন ব্যক্তি সম্পর্কে খবর দেব? এক ব্যক্তি তো আল্লাহর দিকে অগ্রসর হলো! আল্লাহও তাকে আশ্রয় দিলেন। দ্বিতীয় ব্যক্তি লজ্জা করল, আর আল্লাহ তাআলাও তাকে (বঞ্চিত করতে) লজ্জাবোধ করলেন। তৃতীয় ব্যক্তি মুখ ফিরিয়ে নিল, কাজেই আল্লাহও তার থেকে ফিরে থাকলেন। (বুখারি, হাদিস : ৪৭৪)

 

মসজিদে শোয়া

আব্বাদ ইবনে তামিম (রহ.) তাঁর চাচা থেকে বর্ণিত, তিনি (তাঁর চাচা) আল্লাহর রাসুল (সা.)-কে মসজিদে চিত হয়ে এক পায়ের ওপর আরেক পা রেখে শুয়ে থাকতে দেখেছেন। (বুখারি, হাদিস : ৪৭৫)

মন্তব্য