kalerkantho

সোমবার । ১৩ আশ্বিন ১৪২৭ । ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০। ১০ সফর ১৪৪২

মুসলিম প্রতিবেশীর আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়ে ইসলাম গ্রহণ

মুহাম্মাদ হেদায়াতুল্লাহ   

১২ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



মুসলিম প্রতিবেশীর আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়ে ইসলাম গ্রহণ

আমেরিকান পর্যটক স্টিভ সৌদি আরব ঘুরতে এসে পবিত্র মসজিদুল হারামের প্রধান ইমাম ও পবিত্র দুই মসজিদের জেনারেল প্রেসিডেন্সির প্রধান শায়খ আবদুর রহমান আস সুদাইসের হাতে ইসলাম গ্রহণ করেছেন। প্রতিবেশী শায়খ সুদাইসের আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়ে ইসলামের পথে চলতে শুরু করেন স্টিভ।

স্টিভের ইসলামগ্রহণ সম্পর্কে শায়খ সুদাইস আল্লাহর প্রশংসা করে বলেন, ‘স্টিভ এখন থেকে আমার মুসলিম ভাই। ইসলামের পবিত্রতা ও আল্লাহর একত্ববাদের সুমহান শিক্ষা তাঁর অন্তরে খুবই রেখাপাত করে।’ সৌদিতে ভ্রমণকালে উত্তম প্রতিবেশী সম্পর্কে ইসলামের শিক্ষা ও সৌদি আরবের আতিথেয়তা কাছ থেকে দেখার সুযোগ পান স্টিভ।

যুক্তরাষ্ট্রের মিয়ামি অঞ্চলে পর্যটন বিভাগে কর্মরত স্টিভ। নিজের ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের সঙ্গে সৌদি আরবের আভা এলাকায় ভ্রমণ করেন স্টিভ। ওই সময় তাঁরই পাশে অবস্থান করছিলেন শায়খ সুদাইস। শায়খ সুদাইসের পক্ষ থেকে তাঁর ব্যক্তিগত সহাকারী ও অনুবাদক সাআদ আল মাতরাফি আমেরিকার পর্যটক স্টিভকে কিছু খেজুর ও জমজমের পানি উপহার হিসেবে দেন। আল মাতরাফি বর্ণনা করেন, স্টিভ ইসলাম সম্পর্কে জানতে অনেক বেশি আগ্রহী। তাই ইসলাম ধর্মবিষয়ক নানা বই পাঠ করেন। প্রতিবেশী স্টিভের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে শায়খ সুদাইস কোরআন ও হাদিসের আলোকে প্রতিবেশী সম্পর্কে ইসলামের শিক্ষা তুলে ধরেন। প্রতিবেশীর অধিকার ও ইহুদি নারী প্রতিবেশীর সঙ্গে রাসুল (সা.)-এর মানবিক আচরণের ঘটনা বর্ণনা করেন।

নিজের ইসলামগ্রহণ সম্পর্কে স্টিভ বলেন, ‘ইসলামের সুমহান আদর্শ, অনুকম্পা ও অনুগ্রহের শিক্ষা আমাকে ইসলামের প্রতি আগ্রহী করেছে। তা ছাড়া সৌদি আরবের মানুষের সরলতা ও দায়িত্বশীলতায় আমি খুবই মুগ্ধ। এখানে এসে মনে হয়েছে, আমি যেন নিজের পরিবারের সঙ্গে আছি। সবাইকে মনে হয়েছে নিজের ভাইয়ের মতো। অবশ্য ইসলাম গ্রহণের ক্ষেত্রে আল মাতরাফির আচার-ব্যবহার আমার অন্তরে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে।’

শায়খ সুদাইস আভা নগরীতে অবস্থানকালে আমেরিকান প্রতিবেশী সম্পর্কে জানতে পারেন। প্রতিবেশী হিসেবে তাঁকে জমজমের পানি, আরবি কফি ও খেজুর উপহার হিসেবে দেন। তখন স্টিভের অন্তরে এ প্রশ্ন উঁকি দেয়, ‘আমাকে তিনি এত উপহার দিলেন কেন?’ তখন মাতরাফি বলেন, প্রতিবেশীর সঙ্গে উত্তম আচরণের শিক্ষা দেয় ইসলাম। স্টিভের সঙ্গে কথা বলে মাতরাফি বুঝতে পারেন, স্টিভ আগে থেকেই ইসলাম ও মুসলিম সম্পর্কে বহু কিছু জানেন। এর পর থেকে উভয়ের মধ্যে ইসলাম নিয়ে আলাপ-আলোচনা চলতে থাকে।

পরদিন সকালে স্টিভ মাতরাফিকে জানালেন, তিন বছর ধরে ইসলাম সম্পর্কে পাঠ করে বহু রাত চিন্তা করে কাটিয়েছেন তিনি। ইসলামকে সঠিক বলে মনে হয়েছে তাঁর কাছে। এখন তিনি ইসলাম গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। স্টিভের এ কথা শুনে মাতারাফি তাঁকে শায়খ সুদাইসের হাতে ইসলাম গ্রহণ করতে বলেন। অতঃপর শায়খ সুদাইসের কাছে এলে তিনি কালেমা শাহাদাত পাঠ করেন। স্টিভও কালেমা পাঠ করেন। শায়খ সুদাইস তাঁকে মক্কায় গিয়ে ওমরা পালন ও মসজিদ-ই-নববী জিয়ারত করতে বলেন। সূত্র : রিয়াদ ডেইলি

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা