kalerkantho

শনিবার । ১০ ফাল্গুন ১৪২৬ । ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ২৮ জমাদিউস সানি ১৪৪১

প্রশ্ন-উত্তর

অন্যকে হায়াত দানের দোয়া করা যাবে?

২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



প্রশ্ন : আমার বাবা একদিন হঠাৎ বুকের প্রচণ্ড ব্যথায় চিৎকার করছিলেন। তখন আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করেছিলাম। হে আল্লাহ! তুমি আমার হায়াত থেকে কিছু হায়াত আমার বাবাকে দিয়ে দাও। প্রশ্ন হলো, এ রকম দোয়া আল্লাহ কবুল করেন কি না? এবং এ রকম দোয়া করা যায় কি না? হায়াত কি কমে-বাড়ে? ইসলামের দৃষ্টিতে উত্তর দিলে বাধিত থাকব।

—মো. রেজাউল করীম দুলাল, নারায়ণগঞ্জ।

 

উত্তর : কোনো মুসলমানের জন্য স্বাভাবিকভাবে হায়াত বৃদ্ধির দোয়া করা একটি শরিয়তসম্মত বৈধ কাজ। নেক আমল বা দোয়ার দ্বারা আল্লাহর পক্ষ থেকে হায়াত বৃদ্ধি হওয়া হাদিস দ্বারা প্রমাণিত। রাসুলুল্লাহ (সা.)-ও কোনো সাহাবির জন্য হায়াত বৃদ্ধির দোয়া করেছেন। তবে নিজের হায়াত থেকে কিছু অংশ অন্য কাউকে দেওয়ার দোয়া করা শরিয়তে মুহাম্মদিতে প্রমাণিত নয়। (তিরমিজি, হাদিস : ২১৩৯, আদাবুল মুফরাদ, হাদিস : ৬৫৩, বুখারি, হাদিস : ৬৩৪৯, মুসলিম, হাদিস : ৬৭৬৮)

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা