kalerkantho

সোমবার। ২৭ জানুয়ারি ২০২০। ১৩ মাঘ ১৪২৬। ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১     

হজ চুক্তি ২০২০ সম্পাদিত

২০২০ সালে অতিরিক্ত ১০ হাজার যাত্রী হজে যেতে পারবেন

ইসলামী জীবন ডেস্ক   

৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



২০২০ সালে অতিরিক্ত ১০ হাজার যাত্রী হজে যেতে পারবেন

চুক্তির প্রাক্কালে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ ও বাংলাদেশের প্রতিনিধিদল

বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় হজ চুক্তি ২০২০ সম্পাদিত হয়েছে। বাংলাদেশের ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ ও সৌদি আরবের হজ ও ওমরাবিষয়ক মন্ত্রী ড. মোহাম্মদ সালেহ তাহের বেনতেনের মধ্যে এই চুক্তি সম্পাদিত হয়। গত বুধবার সৌদি আরবের হজ ও ওমরাবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে স্থানীয় সময় দুপুর ২টায় তাঁরা চুক্তি সম্পন্ন করেন।

নতুন চুক্তি অনুযায়ী, ২০২০ সালে বাংলাদেশ থেকে অতিরিক্ত ১০ হাজারসহ মোট এক লাখ ৩৭ হাজার ১৯১ জন হজযাত্রী হজে যেতে পারবেন। তবে এজেন্সিপ্রতি হজযাত্রীর সর্বনিম্ন সংখ্যা ১০০ এবং সর্বোচ্চ সংখ্যা ৩০০ বহাল রাখা হয়েছে। (চট্টগ্রাম ও সিলেট বিমানবন্দর ব্যবহারকারী হজযাত্রী ছাড়া) শতভাগ হজযাত্রীর ইমিগ্রেশন সৌদি আরবের পরিবর্তে ঢাকায় সম্পন্ন করা হবে। মদিনা থেকে হজ ফ্লাইটের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পাবে।

এ ছাড়া হজ এজেন্সিগুলোর জন্য এআইটিএ সনদ থাকার শর্তারোপ করা হচ্ছে না। প্রত্যেক হজযাত্রীর ইনস্যুরেন্স কাভারেজ দেবে সৌদি সরকার। রুট টু মক্কার ন্যায় ফিরতি হজযাত্রীদের জন্য রুট টু ঢাকার সুবিধা চালু করা বিষয়ও চুক্তিতে রয়েছে। পাশাপাশি পরিবহন সুবিধা বৃদ্ধি ও উন্নত করার আশ্বাস দিয়েছে সৌদি আরব। এবারও মিনায় দ্বিতল খাট না রাখার বিষয় উল্লেখ রয়েছে চুক্তিতে।

এর আগে বুধবার সকাল ১১টায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ডক্টর আব্দুল ফাত্তাহ বিন সোলায়মান মাশাতের নেতৃত্বাধীন সৌদি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক হয়।

বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের অন্য সদস্যরা হলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনিছুর রহমান, সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসি, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মিজানুর রহমান, কাউন্সিলর (হজ) জেদ্দা মো. মাকসুদুর রহমান, পরিচালক, হজ অফিস, ঢাকা মো. সাইফুল ইসলাম ও হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) সভাপতি এম শাহাদাৎ হোসাইন তাসলিম প্রমুখ।

 

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা