kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

মানবজাতির প্রতি কোরআনের অমূল্য উপদেশ

সুরা তাওবা : দ্বিতীয় পর্ব

২০ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানবজাতির প্রতি কোরআনের অমূল্য উপদেশ

সংসার বিরাগীরাও অপরাধপ্রবণ হতে পারে

ইরশাদ হয়েছে, ‘হে মুমিনরা! পণ্ডিত ও সংসার বিরাগীদের অনেকেই মানুষের সম্পদ অন্যায়ভাবে ভোগ করে এবং মানুষকে আল্লাহর পথ থেকে ফিরিয়ে রাখে। আর যারা স্বর্ণ-রৌপ্য পুঞ্জীভূত করে রাখে এবং আল্লাহর পথে খরচ করে না, তাদেরকে মর্মন্তুদ শাস্তির সুসংবাদ দাও।’ (সুরা : তাওবা, আয়াত : ৩৪)

 

বিপদ আল্লাহর নিয়ন্ত্রণাধীন

ইরশাদ হয়েছে, ‘বলুন! আমাদের জন্য আল্লাহ যা নির্ধারণ করেছেন তা ছাড়া আমাদের আর কিছুই হবে না। তিনি আমাদের অভিভাবক। আল্লাহর ওপরই মুমিনদের নির্ভর করা উচিত।’

(সুরা : তাওবা, আয়াত : ৫১)

 

অবিশ্বাসীদের প্রাচুর্য দেখে বিস্মিত হয়ো না

ইরশাদ হয়েছে, ‘তাদের সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি যেন তোমাকে মুগ্ধ না করে। আল্লাহ তো এর মাধ্যমে তাদেরকে পার্থিব জীবনে শাস্তি দিতে চান। অবিশ্বাসী অবস্থায় তাদের আত্মা দেহত্যাগ করবে।’ (সুরা : তাওবা, আয়াত : ৫৫)

 

আল্লাহর প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করো

ইরশাদ হয়েছে, ‘ভালো হতো যদি তারা আল্লাহ ও তাঁর রাসুল তাদের যা দিয়েছেন, তাতে পরিতুষ্ট হতো এবং বলত, আল্লাহই আমাদের জন্য যথেষ্ট। আল্লাহ আমাদের নিজ অনুগ্রহে দান করবেন এবং তাঁর রাসুলও; আমরা আল্লাহরই অনুরক্ত।’

(সুরা : তাওবা, আয়াত : ৫৯)

 

আট শ্রেণির মানুষকে জাকাত দাও

 

ইরশাদ হয়েছে, ‘জাকাত তো শুধু নিঃস্ব, অভাবগ্রস্ত ও তত্সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের জন্য, যাদের চিত্ত আকর্ষণ করা হয় তাদের জন্য, দাসমুক্তির জন্য, ঋণ ভারাক্রান্তদের, আল্লাহর পথে ও মুসাফিরদের জন্য। এটা আল্লাহর বিধান। আল্লাহ সর্বজ্ঞ, প্রজ্ঞাময়।’

(সুরা : তাওবা, আয়াত : ৬০)

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা