kalerkantho

শুক্রবার । ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬। ৮ রবিউস সানি ১৪৪১     

আপনি যা জানতে চেয়েছেন

অমুসলিম প্রতিবেশী অসুস্থ হলে কী করব

১০ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



প্রশ্ন : আমাদের পাশের বাড়িতে এক হিন্দু পরিবার থাকে। আর্থিকভাবে তারা অসচ্ছল। কয়েক দিন আগে সেই পরিবারের বড় ছেলে অসুস্থ হয়ে পড়লে আমরা তাকে দেখতে যাই এবং তাকে আর্থিক সহযোগিতা করি। কিন্তু আমার এক চাচাতো ভাই বলেন, আপনি একটি মুশরিক পরিবারকে সাহায্য করে অনেক বড় গুনাহ করেছেন। আপনার তওবা করা উচিত। আমি জানতে চাই, তাদের সহযোগিতা করায় আমার কি গুনাহ হয়েছে?

আবদুল হালিম, মৌলভীবাজার।

 

উত্তর : প্রতিবেশী অমুসলিম হলেও তার সঙ্গে সদাচরণ করা, বিপদাপদে সাহায্য-সহযোগিতা করা, অসুস্থ হলে খোঁজখবর নেওয়া ও সাহায্য করা ইসলামের শিক্ষা। এটিও প্রতিবেশীর হকের অন্তর্ভুক্ত। আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন, ‘দ্বিনের ব্যাপারে যারা তোমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেনি এবং তোমাদের নিজেদের দেশ থেকে বের করে দেয়নি তাদের প্রতি মহানুভবতা প্রদর্শন ও ন্যায়বিচার করতে আল্লাহ তোমাদের নিষেধ করেননি। আল্লাহ তো ন্যায়পরায়ণদের ভালোবাসেন।’ (সুরা : মুমতাহিনা, আয়াত : ৮)

আনাস বিন মালিক (রা.) বলেন, ‘এক ইহুদি বালক রাসুল (সা.)-এর খেদমত করত। একবার সে অসুস্থ হলে রাসুল (সা.) তাকে দেখতে গেলেন। অতঃপর তাকে বলেন, তুমি ইসলাম গ্রহণ করো। ফলে সে মুসলিম হয়ে গেল। (সহিহ বুখারি, হাদিস: ৫৬৫৭)

সুতরাং প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে হিন্দু ছেলেটিকে দেখতে যাওয়া ও আর্থিক সহযোগিতা করা অন্যায় হয়নি; বরং প্রতিবেশীর হক আদায়ের কারণে তা প্রশংসনীয় কাজ হিসেবে গণ্য হবে। তবে মুসলমানের ওপর অমুসলিমকে প্রাধান্য দেওয়া এবং তাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতাপূর্ণ সম্পর্ক গড়া নিষেধ। কোরআনে এ ব্যাপারে কঠোর নিষেধাজ্ঞা এসেছে।

সূত্র : ফাতহুল বারি : ৩/২৬২; ১০/১২৫; উমদাতুল কারি : ২১/২১৮; আলবাহরুর রায়িক : ৮/২০৪; ফাতাওয়া হিন্দিয়া : ৫/৩৪৮; রদ্দুল মুহতার : ৬/৩৮৮

 

মন্তব্য



সাতদিনের সেরা