kalerkantho

মঙ্গলবার। ২০ আগস্ট ২০১৯। ৫ ভাদ্র ১৪২৬। ১৮ জিলহজ ১৪৪০

ইসরায়েলে হাজার বছরের প্রাচীন মসজিদ আবিষ্কার

শেখ আবদুল্লাহ বিন মাসউদ   

২২ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ইসরায়েলে হাজার বছরের প্রাচীন মসজিদ আবিষ্কার

ইসরায়েলের একটি গ্রামে প্রত্নতাত্ত্বিক খননের সময় প্রায় এক হাজার ২০০ বছরের প্রাচীন মসজিদের ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে। ইসরায়েলের বিরশেরা অঞ্চলের একটি বেদুইন অঞ্চলে এই মসজিদের নিদর্শন পাওয়া গেছে। খনন প্রকল্পের পরিচালক শাহার জুর ও ড. জন সেলিমান বলেন, একটি গ্রাম্য মসজিদ খুঁজে পাওয়া গেছে। এতটা প্রাচীন মসজিদ মধ্যপ্রাচ্য ও পৃথিবীর অন্যান্য অঞ্চলে বিরল। বিশেষত বিরশেরায় মসজিদের এমন কাঠামো এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

তাঁরা আরো বলেন, এই সময়ের অনেক পরিচিত মসজিদ জেরুজালেম ও মক্কায় রয়েছে। তবে এগুলো অতি প্রাচীন এবং ইসলামের আগমনের আগেও তা মানুষ ইবাদতখানা হিসেবে ব্যবহার করত। এখন আমরা একটি ছাদখোলা মসজিদের ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছি। চতুষ্কোণ মসজিদটির মিহরাবও রয়েছে। প্রাপ্ত ধ্বংসাবশেষ থেকে বোঝা যাচ্ছে, মসজিদটি কয়েক শ বছর আগে নির্মিত হয়েছিল। সম্ভবত এটাই ইসরায়েলে ইসলামী যুগের প্রথম মসজিদ।

আবিষ্কৃত মসজিদের পাশেই বাইজানটাইন যুগের (৫০০-৬০০ খ্রি.) একটি বসতি আবিষ্কার করা হয়েছে। ইসলামের প্রাথমিক যুগে বসতির গোড়াপত্তন হয়। এখানে বসতি, খোলা প্রাঙ্গণ, খাদ্যগুদাম, খাদ্য তৈরির স্থান, ফায়ারপ্লেস ইত্যাদি আবিষ্কৃত হয়েছে। কৃষির জন্য উপযোগী ভূমি ও পানির সহজলভ্যতা মানুষকে এখানে টেনে নিয়ে আসে।

প্রফেসর গিডিয়ন বলেন, বাইজানটাইন যুগের একটি বসতির পাশে একটি মসজিদ আবিষ্কৃৃত হওয়ার অর্থ হলো উভয় সম্প্রদায়ের মধ্যে ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক বিনিময়ের ধারা অব্যাহত ছিল। নব আবিষ্কৃত শহর ও মসজিদ এই অঞ্চলের ইতিহাসপাঠে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ইসলামের ইতিহাস অনুযায়ী, সিরিয়া বিজয়ের পর এই অঞ্চলের ভূমি মুসলিম সেনাবাহিনী ও সেনানায়কদের মধ্যে বিতরণ করা হয়। বিখ্যাত সেনাপতি ওমর ইবনে ইজ সিরিয়া ও ইসরায়েলের এই অঞ্চলের ভূমির মালিকানা লাভ করেন। সেই হিসাবে ধারণা করা হচ্ছে, ওমর ইবনে ইজ এই মসজিদের নির্মাতা হতে পারেন। সূত্র : দ্য জেরুজালেম পোস্ট

মন্তব্য