kalerkantho

সোমবার । ২৮ নভেম্বর ২০২২ । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্বে পণ্য বাণিজ্য কমবে

ডাব্লিউটিওর পূর্বাভাস

বাণিজ্য ডেস্ক   

৬ অক্টোবর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের পাশাপাশি আরো বেশ কিছু ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বিশ্ব অর্থনীতি। এর ফলে ২০২৩ সালে বিশ্বজুড়ে কমবে বাণিজ্য। গতকাল বুধবার এমন পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা (ডাব্লিউটিও)। সংশোধিত বার্ষিক পূর্বাভাসে সংস্থার অর্থনীতিবিদরা আশা করছেন, এ বছর বিশ্বে পণ্য বাণিজ্যে প্রবৃদ্ধি হবে ৩.৫ শতাংশ, যা এপ্রিলের প্রত্যাশার চেয়ে কিছুটা বেশি।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু ২০২৩ সালে বাণিজ্যের নাটকীয় পতন হবে। ওই বছর মাত্র ১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হবে, যেখানে ছয় মাস আগে সংস্থার পূর্বাভাস ছিল, ২০২৩ সালে বাণিজ্যে প্রবৃদ্ধি আসবে ৩.৪ শতাংশ।

ডাব্লিউটিওর মহাপরিচালক এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালা বলেন, ২০২৩ সালের চিত্র উল্লেখযোগ্যভাবে অন্ধকার। তিনি আরো বলেন, বর্তমান বিশ্ব অর্থনীতি বহুমুখী সংকটের মুখে। বেশির ভাগ দেশের অর্থনীতিতেই কঠোর মুদ্রানীতির প্রভাব পড়ছে।

ডাব্লিউটিওর অর্থনীতিবিদরা আশা করছেন, এ বছর বিশ্বে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ২.৮ শতাংশ। কিন্তু ২০২৩ সালে প্রবৃদ্ধি কমে হবে মাত্র ২.৩ শতাংশ, যেখানে ওইসিডি বলছে, ২০২২ সালে বিশ্বে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৩ শতাংশ এবং ২০২৩ সালে হবে ২.২ শতাংশ। একইভাবে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলও (আইএমএফ) বলেছে, এ বছর বিশ্বে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৩.২ শতাংশ এবং আগামী বছর হবে ২.৯ শতাংশ।

ডাব্লিউটিও জানায়, ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে ইউরোপে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি ওই অঞ্চলে জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধির পাশাপাশি উৎপাদন খরচও বাড়াচ্ছে। এর পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রেও মুদ্রানীতি কঠোর করায় আবাসন থেকে শুরু করে গাড়িশিল্প, স্থির বিনিয়োগসহ অর্থনীতির আরো অনেক খাত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। অন্যদিকে কভিড-১৯-এর কারণে চীনে এখনো উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। উপরন্তু জ্বালানি, খাদ্য ও সারের আমদানি খরচ বেড়ে যাওয়া বিশ্বজুড়ে খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার শঙ্কা আরো বাড়িয়ে দিচ্ছে এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোতে ঋণসংকট বাড়াচ্ছে। ফলে আগামী বছর বিশ্ববাণিজ্য আরো সংকুচিত হবে। সূত্র : এএফপি



সাতদিনের সেরা