kalerkantho

রবিবার । ৪ ডিসেম্বর ২০২২ । ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ । ৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পাকিস্তানে দুই মাসে এফডিআই কমেছে ২৬.১%

বাণিজ্য ডেস্ক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অর্থনৈতিকভাবে চরম সংকটে পড়েছে পাকিস্তান। চলমান অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে বিদেশি সরাসরি বিনিয়োগ (এফডিআই) কমেছে ২৬.১ শতাংশ। ফলে এর পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৬৯.৫ মিলিয়ন ডলারে। স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তানের উদ্ধৃৃতি দিয়ে এমন তথ্য প্রকাশ করেছে বিজনেস-স্ট্যান্ডার্ড।

বিজ্ঞাপন

এমন এক সময় উন্নয়ন ঘটে যখন দেশটি গভীর সংকটের মুখোমুখি হয়েছে। যে সময় দেশটি ঋণ বহির্ভূত অর্থের প্রবাহ বাড়িয়ে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বাড়ানোর চেষ্টা করছে। এ ছাড়াও আরো একটি ভয়ংকর বাস্তবতায় দেশটি। পাকিস্তানের অর্থনীতি বর্ধিত তহবিল সুবিধার একটি অংশ হিসেবে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছ থেকে প্রায় এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার ইনফ্লো পেয়েছে যখন চীন পাকিস্তানকে ঋণের বিষয়ে পুনর্নির্ধারণ করেছে। এতে করে চীনা বিনিয়োগও অধরা রয়ে গেছে।

এ বছরের তুলনায় গত বছর এফডিআই বেশি ছিল। একই সময়ে অর্থাৎ আগের অর্থবছরের জুলাই-আগস্টে এফডিআই ছিল ২২৯.৫ মিলিয়ন।

এই বছরের এফডিআই তথ্য বলছে, গত বছরের তুলনায় ইউএসডি ৬০ মিলিয়ন তীব্রভাবে হ্রাস পেয়েছে। স্টেট ব্যাংক অব পাকিস্তানের তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের জুলাই-আগস্টের মধ্যে এফডিআই বহিঃপ্রবাহ ছিল ইউএসডি ৭৮.২ মিলিয়ন ডলারের বিপরীতে ২৪৭.৮ মিলিয়ন ডলার। শুধু আগস্টেই নেট এফডিআইয়ের পরিমাণ ছিল ইউএসডি ১১০.৭ মিলিয়ন, যা আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ১২ শতাংশ কম।

এফডিআই প্রতিবেদন পাকিস্তানে চীনা বিনিয়োগ ম্লান হওয়ার বিষয়টিও প্রকাশ করেছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে দেশটিতে সামগ্রিক চীনা বিনিয়োগ ৩১ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। সূত্র : বিজনেস-স্ট্যান্ডার্ড



সাতদিনের সেরা