kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৯ নভেম্বর ২০২২ । ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ ।  ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পরোক্ষ নির্ভরতা কমিয়ে প্রত্যক্ষ কর বাড়ানোর পরামর্শ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



পরোক্ষ নির্ভরতা কমিয়ে প্রত্যক্ষ কর বাড়ানোর পরামর্শ

দেশে কর জিডিপি বর্তমানে সবচেয়ে কম। এই অবস্থায় বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ থেকে উন্নত দেশের মর্যাদা অর্জনে কাজ করছে। আর এই লক্ষ্য অর্জনে পরোক্ষ করের নির্ভরশীলতা থেকে সরে এসে প্রত্যক্ষ কর বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এমসিসিআই) আয়োজিত এক আলোচানসভায় বক্তারা।

গতকাল বৃহস্পতিবার ‘কর প্রদান, রিটার্ন দাখিল ও উৎস কর কর্তনের বিধান পরিপালন : অর্থ আইন, ২০২২-এর মাধ্যমে আনীত পরিবর্তন’ বিষয়ক আলোচনাসভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

রাজধানীর মতিঝিলে এমসিসিআই এবং জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অধীন কর অঞ্চল-১৫ যৌথভাবে এমসিসিআই কার্যালয়ে এই আলোচনাসভার আয়োজন করে। এমসিসিআইয়ের সভাপতি মো. সায়ফুল ইসলামের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কর অঞ্চল-১৫ ঢাকা-এর কর কমিশনার এ কে এম হাসানুজ্জামান।

এমসিসিআইয়ের সভাপতি বলেন, করোনা ও পরবর্তী সময়ে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বৈশ্বিক অর্থনীতিকে একটি চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিয়েছে। বর্তমান বিশ্বের সব চ্যালেঞ্জের কথা মনে রেখেই প্রণীত হয়েছে অর্থ আইন ২০২২।

তিনি বলেন, কর ব্যবস্থাকে সময়োপযোগী করার লক্ষ্যে কাজ করার জন্য এনবিআর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বিশেষ করে অনলাইন ও অটোমেশন ব্যবস্থার পূর্ণ ব্যবহার করা গেলে ব্যবসায় সময় ও খরচ দুটিই বেঁচে যাবে। এ ছাড়া এমসিসিআই সভাপতি ব্যবসাসংক্রান্ত সব লাইসেন্স ও নবায়নের মেয়াদ তিন থেকে পাঁচ বছর করার জন্য এনবিআরের সহযোগিতা চেয়েছেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কে এম হাসানুজ্জামান বলেন, এই ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে কর কর্তৃপক্ষ এবং করদাতাদের মধ্যকার দূরত্ব নিরসন হবে, করদাতাদের জন্য কর পরিপালন সহজ হবে।



সাতদিনের সেরা